kalerkantho


'তারেক রহমান বাংলাদেশের নাগরিক ছিলেন, আছেন, থাকবেন'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৫ এপ্রিল, ২০১৮ ১২:৩৬



'তারেক রহমান বাংলাদেশের নাগরিক ছিলেন, আছেন, থাকবেন'

তারেক রহমানের নাগরিকত্ব নিয়ে বিতর্ক করে সরকার সমস্যায় পড়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেন, তারেক রহমান নাগরিকত্ব বর্জন করেননি। সম্পূর্ণভাবে তিনি বাংলাদেশের নাগরিক ছিলেন, আছেন এবং ভবিষ্যতেও থাকবেন।

আজ বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলীয় কার্যালয়ের সামনে আয়োজিত এক মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

ফখরুল বলেন, সংগঠন হিসেবে আওয়ামী লীগ ভিত্তিহীন, কাল্পনিক ও অনর্গল মিথ্যা বলার যে একটি ‘সেন্টার অব এক্সসিলেন্স’ সেটি আবারো তার প্রমাণ করলেন। আর সেই কেন্দ্রের একজন সদস্য পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী।

সরকার নির্বাচনের কথা বলছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, নির্বাচন করতে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড, খালেদা জিয়াকে মুক্তি, সকল রাজবন্দিদের মুক্তি, মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে এবং সংসদ ভেঙে দিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে পদত্যাগ করতে হবে। তাহলেই নিরপেক্ষ অবস্থা তৈরী হবে।

তিনি বলেন, বেগম খালেদা জিয়াকে কেন বন্দি করা হয়েছে তা আমরা জানি। খালেদা জিয়া মুক্ত থাকলে, সামনে যে আন্দোলন হবে তা মোকাবেলা করা সরকারের পক্ষে সম্ভব না। সে জন্যই দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে মিথ্যা মামলায় বন্দি করেছে সরকার।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেনসহ দলের সিনিয়র নেতারা।

এর আগে আজ সকাল ১১টা থেকে মানববন্ধন আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হওয়ার কথা ছিল। কিন্তু উপস্থিত হাজারো নেতাকর্মীরা সকাল ১০টার পরেই ব্যানার নিয়ে সড়কে দাঁড়িয়ে যান।


মন্তব্য