kalerkantho


‘নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির কোনো প্রতিনিধি থাকবে না’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৮ ২০:৫৬



‘নির্বাচনকালীন সরকারে বিএনপির কোনো প্রতিনিধি থাকবে না’

বর্তমান সংসদে বিএনপির প্রতিনিধি না থাকায় নির্বাচনকালীন সরকারে দলটির কোনো প্রতিনিধি থাকবে না বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

শনিবার দুপুরে টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ভারতেশ্বরী হোমস আয়োজিত অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন অর্থমন্ত্রী। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনের নির্দিষ্ট সময়ের আগেই মন্ত্রীসভা ভেঙ্গে দেয়া হবে বলেও জানান মন্ত্রী।

অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেন, ‘আমাদের কতগুলো সুন্দর সুন্দর ট্র্যাডিশন বানিয়েছি। প্রধানমন্ত্রী নির্বাচনের আগে মন্ত্রীসভাকে বিদায় দিয়েছিলেন। আমরা যারা ছিলাম তারা পদত্যাগ করলাম। পরে তিনি মন্ত্রীসভা পুনর্গঠন করে আরো অনেককে আনলেন। সবার প্রতিনিধিদের নিয়ে তিনি এটি করেছিলেন। অর্থ্যাৎ তিনি মোটামুটিভাবে একটা তত্বাবধায়ক সরকারের ব্যবস্থা করলেন। বিএনপি যদি একটা নির্বাচিত পার্টি হয়, তাহলে তাদেরও একটি প্রতিনিধি থাকতে পারতো। কিন্তু খালেদা জিয়ার নির্বুদ্ধিতার জন্য বিএনপি থাকতে পারবে না। এটা একটা দুর্ভাগ্যের বিষয়।’

তিনি আরো বলেন, ‘আমার বিশ্বাস আবার নির্বাচনের আগে মন্ত্রীসভা ভেঙ্গে যাবে এবং এটা পুনর্গঠন হবে। যেখানে অন্য যে  দলগুলো আছে তারাও প্রতিনিধি দিবে। এটা এক নম্বর ট্র্যাডিশন।’

দ্বিতীয় ট্র্যাডিশন হচ্ছে, ‘ছবি অ্যাইডেন্টিটি কার্ড হবার কথা। জালিয়াতির কোনো চিহ্ন থাকবে না। জালিয়াতির কথা চিন্তা করা অসম্ভব।' এসময় তিনি হেসে বলেন, 'হ্যাঁ এই ব্যবস্থাতেও জালিয়াতি হয়। আমি একজন জনপ্রিয় লোক। আমার গুণ্ডা বাহিনী আছে সুতরাং আমি ভোট কেন্দ্র দখল করে ফেললাম। কিন্তু এমন গুণ্ডামি সব জায়গায় হয় না। এটাও আমরা দেখেছি। কিছু কিছু জায়গায় হতে পারে।’

তারপর অর্থমন্ত্রী গম্ভীরভাবে বলেন, ‘তবে সেগুলোকে নিয়ন্ত্রণ করার জন্য যে সিস্টেমটা আমরা করেছি, একদিনে নির্বাচন না হয়ে, এখনতো দু তিন দিনে নির্বাচন হয়। এতে যথাযথভাবে সব জায়গায় পুলিশ দেওয়া যায়। যারা আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য আছেন তারা থাকলে জালিয়াতি সম্ভব নয়।’


মন্তব্য