kalerkantho


‘এই লুটপাটের জন্য বঙ্গবন্ধু জীবন দেননি’

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ মার্চ, ২০১৮ ২০:৩৩



‘এই লুটপাটের জন্য বঙ্গবন্ধু জীবন দেননি’

‘বঙ্গবন্ধুর নাম ভাঙিয়ে আওয়ামী লীগ করা, লুটপাট ও অর্থ পাচার করা বঙ্গবন্ধুকে অবমানা করা ছাড়া কিছুই নয়’ মন্তব্য করে বঙ্গবন্ধুর নাম ভাঙিয়ে লুটপাট ও সম্পদের পাচার রুখতে জাতীয় ঐক্যের আহ্বান জানিয়েছেন ড. কামাল হোসেন। শনিবার ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটি মিলনায়তনে ‘জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ায় আইনজীবীদের ভূমিকা’ শীর্ষক মতবিনিময় অনুষ্ঠানে তিনি এ আহ্বান জানান।

তিনি বলেন, ‘বঙ্গবন্ধুর জন্মদিনে জনগণের অংশ হিসেবে জনগণের পক্ষ হয়ে সেই কথাগুলো আমরা আজ স্মরণ করতে চাই। বঙ্গবন্ধু আমাদের ক্ষমতা দিয়ে গেছেন এবং দায়িত্ব দিয়ে গেছেন। জনগণ অবশ্যই ক্ষমতার মালিক। তার সঙ্গে দায়িত্ব আছে। এ দেশের সম্পদ লুটপাট হয়ে যাবে আর আমরা কি নীরব দর্শক হিসেবে বসে দেখতে থাকবো?’

ড. কামাল বলেন, ‘আমরা তো সারাজীবন বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ করেছি। আমি এখনও বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগে আছি বলে বিশ্বাস করি। এখন দেশে বঙ্গবন্ধুর নাম ভাঙিয়ে আওয়ামী লীগ করা হচ্ছে। এটাকে বঙ্গবন্ধুর আওয়ামী লীগ বলার অর্থ বঙ্গবন্ধুকে অবমাননা; অবমাননা করা ছাড়া আর কিছু না।’

তিনি বলেন, ‘আমি স্বচক্ষে দেখেছি, উনাকে (বঙ্গবন্ধু) দুই-দুই বার সারা পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রিত্ব দিতে চেয়েছিল পশ্চিম পাকিস্তানিরা। বঙ্গবন্ধু হেসে বলেছিলেন, ‘পাগল নাকি, আমি সারাজীবন রাজনীতি করেছি প্রধানমন্ত্রী হওয়ার জন্য নয়, জনগণের অধিকার প্রতিষ্ঠা করার জন্য।’ ওই কথাটা আমাদের প্রত্যেককেই মনে রাখতে হবে।’

ড. কামাল বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কি লুটপাট করার ওপেন টেন্ডারের লাইসেন্স দিয়েছেন? যারা এখন টাকা মারছে, হাজার হাজার কোটি টাকা পাচার করছে, তাদের সুযোগ দেওয়ার জন্য বঙ্গবন্ধু জীবন দিয়েছিলেন? সবার বোঝা উচিত, উনি এই সুযোগ দেওয়ার জন্য জীবন দেননি।’

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী শাহ খসরুজ্জামানের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় আরও বক্তব্য রাখেন ডাকসুর সাবেক ভিপি সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমেদ, সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সুব্রত চৌধুরী, জগলুল হায়দার আফ্রিক, মাহতাবুল বাশার,মোশারফ হোসেন, জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়ার সদস্য সচিব আ.ব.ম মোস্তফা আমীন প্রমুখ।


মন্তব্য