kalerkantho


সংসদীয় কমিটির অভিমত

বিসিএসআইআর চেয়ারম্যান হতে ২০ বছর অভিজ্ঞতার দরকার নেই

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ০০:০৮



বিসিএসআইআর চেয়ারম্যান হতে ২০ বছর অভিজ্ঞতার দরকার নেই

বাংলাদেশ বিজ্ঞান শিল্প ও গবেষণা পরিষদের (বিসিএসআইআর) চেয়ারম্যান হতে বিজ্ঞানী, প্রযুক্তিবিদ বা গবেষকদের ২০ বছরের বাস্তব অভিজ্ঞতা থাকার দরকার নেই। এমনটা মনে করছে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত স্থায়ী কমিটি। বিদ্যমান আইনের এ সংক্রান্ত বিধান বাতিলের প্রস্তাব দিয়েছে তারা।

একইসঙ্গে বিসিএসআইআর বা এর নিয়ন্ত্রণাধীন কোনো প্রতিষ্ঠানের পদে কর্মরতদের চেয়ারম্যান বা পরিষদের সদস্য না করার বিধানও বিলুপ্ত করতে চাইছে কমিটি। এ দুটি নতুন প্রস্তাব যুক্ত করে বিসিএসআইআর আইন সংশোধনে সংসদে উত্থাপিত বিলের প্রতিবেদন চূড়ান্ত করা হয়েছে। একইসঙ্গে এই বিল পাসের উত্থাপনের সুপারিশ করা হয়েছে।

গতকাল বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদ ভবনে কমিটির বৈঠকে এই সুপারিশ করা হয়। কমিটির সভাপতি ডা. আ ফ ম রুহুল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত বৈঠকে কমিটির সদস্য ইমরান আহমেদ, মোহাম্মদ আমান উল্লাহ ও হাজেরা খাতুন ছাড়াও বিশেষ আমন্ত্রণে বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রী স্থপতি ইয়াফেস ওসমান অংশ নেন। এ সময় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সচিবসহ মন্ত্রণালয় ও সংসদ সচিবালয়ের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে গত ১৫ জানুয়ারি সংসদে উত্থাপিত এ বিলটি ২১ দিনের মধ্যে পরীক্ষা করে প্রতিবেদন দিতে সংসদীয় কমিটিতে পাঠানো হয়। এরই প্রেক্ষিতে কমিটির বৈঠকে এটি নিয়ে আলোচনা হয়। এ সময় কমিটিকে বলা হয়, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন সংস্থাগুলোর গবেষণা কাজে নিয়োজিত বিজ্ঞানীদের সঙ্গে বিসিএসআইআর-এর গবেষকদের চাকরির বয়সসীমায় সামঞ্জস্য আনতে বিলটি আনা হয়েছে। এতে বিদ্যমান আইনের ধারা ১২ এর উপ-ধারা (৪) এ উল্লেখিত বংলাদেশ বিজ্ঞান ও শিল্প গবেষণা পরিষদের গবেষকদের চাকরির বয়সসীমা ৬৭ বছরের বিধান বিলুপ্তির প্রস্তাব রয়েছে।

দি পাবলিক সার্ভিস এ্যাক্ট অনুসারে প্রজাতন্ত্রের কর্মারীদের অবসর গ্রহণের বয়সসীমা ৫৯ বছর উল্লেখ করে বিলের উদ্দেশ্য ও কারণ সম্বলিত বিবৃতিতে বলা হয়েছে, বিদ্যমান আইনে বিজ্ঞানী ও সরকারি-কর্মচারীদের মধ্যে বৈষম্যের সৃষ্টি হয়েছে। যেটা নিরসনে এই বিল আনা হয়েছে।



মন্তব্য