kalerkantho


চাঁদপুরে দুদক চেয়ারম্যান

বিবেকের বিরুদ্ধে যা করবেন, সেটাই বড় দুর্নীতি

চাঁদপুর প্রতিনিধি    

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ ১৬:২৬



বিবেকের বিরুদ্ধে যা করবেন, সেটাই বড় দুর্নীতি

'যে কেউ দুর্নীতি করলেই তাকে সাজা ভোগ করতে হবে। এই জন্য অনৈতিকভাবে কাউকে আশ্রয় প্রশ্রয় দেওয়াও এক ধরনের দুর্নীতির নামান্তর। তাই বিবেকের বিরুদ্ধে আপনি যাই করবেন, সেটা হচ্ছে বড় দুর্নীতি।' 

আজ বুধবার দুপুরে চাঁদপুর জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে মতবিনিময় সভায় দেওয়া বক্তব্যে এসব কথা বলেন দুর্নীতি দমন কমিশনের চেয়ারম্যান ইকবাল মাহমুদ।

দুদক চেয়ারম্যান বলেন, 'বর্তমানে প্রশ্নপত্রের সঙ্গে শুধু শিক্ষক-সরকারি কর্মকর্তা-ই নয়, এর সঙ্গে অনেক রাঘব বোয়ালও জড়িত। তাদের প্রতিও নজরদারি শুরু হয়েছে।'  তিনি বলেন, 'দুদক ইতিমধ্যে ২২ হাজার শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ওপর কাজ করেছে এবং আগামীতে আরো ১১ হাজার প্রতিষ্ঠানে স্বচ্ছতা নিশ্চিত করতে কাজ শুরু করবে।' তবে সবার আগে নিজের বিবেক এবং দায়বদ্ধতাকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য সমাজের সকল স্তরের মানুষের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।

আরো পড়ুন বাংলাদেশ এখন অনেক নিরাপদ: আইজিপি

চাঁদপুর জেলা প্রশাসক আব্দুস সবুর মণ্ডলের সভাপতিত্বে মতবিনিময় সভায় জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে সরকারি ও বেসরকারি বিভাগের প্রধান, শিক্ষক ও জনপ্রতিনিধি এবং সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন। এ সময় নিজ নিজ দপ্তর কীভাবে পরিচালিত হয়- তা দুদক চেয়ারম্যানের কাছে উপস্থাপন করেন উপস্থিত প্রতিনিধিরা।

আরো পড়ুন অপরাধ করে কেউ পার পাবে না: সেতুমন্ত্রী

এতে দুদকের মহাপরিচালক (প্রতিরোধ), অতিরিক্ত সচিব মো. জাফর ইকবাল উপস্থিত ছিলেন। 



মন্তব্য