kalerkantho


রোহিঙ্গা ইস্যুতে সংসদে গোলটেবিল বৈঠক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০৫:২৫



রোহিঙ্গা ইস্যুতে সংসদে গোলটেবিল বৈঠক

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করার আহ্বান জানিয়েছেন এশিয়ান পার্লামেন্ট ফর হিউম্যান রাইটস (এপিএইচআর) প্রতিনিধি দল। তারা রোহিঙ্গা সমস্যা দ্রুত যাতে সমাধান হয় সে জন্য তারা প্রত্যেকেই নিজ দেশের সরকারের মাধ্যমে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করার উদ্যোগ নিবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে ঢাকায় সফররত প্রতিনিধি দলটির অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সঙ্গে গোল টেবিল বৈঠকে মিলিত হন। সংসদীয় কমিটির সভাপতি ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে ওই বৈঠকে জাতীয় সংসদের প্রতিনিধি দলে লেন সংসদ সদস্য ডা. দীপু মনি, এ বি তাজুল ইসলাম, মুহাম্মদ ফারুক খান, মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ, আব্দুল মান্নান ও নাহিম রাজ্জাক।

বৈঠকে ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, মিয়ানমার থেকে প্রাণের ভয়ে পালিয়ে আসা প্রায় এক মিলিয়ন রোহিঙ্গা নিয়ে বাংলাদেশ এক ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয়ের সম্মুখীন। জনসংখ্যার অধিক ঘনত্বের বাংলাদেশে রোহিঙ্গা অনুপ্রবেশ এদেশের পরিবেশ এবং নিরাপত্তার জন্য মারাত্মক হুমকি। প্রধানমন্ত্রী এ সমস্ত রোহিঙ্গাদের আশ্রয়, খাবার এবং নিরাপত্তা দিয়ে আন্তর্জাতিক প্রশংসা কুড়িয়েছেন। সম্প্রতি মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদেরকে নিজ বাসভূমিতে ফিরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করলেও তার অগ্রগতি সন্তোষজনক নয়। তাই আন্তর্জাতিক বিশ্বের উচিত মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করা যাতে তারা দ্রুত রোহিঙ্গাদেরকে নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয়। আসিয়ানভুক্ত দেশগুলো মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়াকে ত্বরান্বিত করতে এবং ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে পারে বলে বলে তিনি উল্লেখ করেন।

বৈঠকে এপিএইচআর প্রতিনিধিদল রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করে বাংলাদেশের মানবিক দৃষ্টিভঙ্গির ভূয়সী প্রশংসা করেন। ওই প্রতিনিধি দলে ছিলেন- ইন্দোনেশিয়ার এমপি ইভা কুসুমা সানদারি, মালয়েশিয়ার এমপি চার্লেস সানিত্ময়াগো, সিঙ্গাপুরের এমপি লুইস এনজি, থাইল্যান্ডের সাবেক এমপি রাচাদা ধানাডাইরড ও মালয়েশিয়ার এমপি মিসেস লিনা মুক্তি।

স্পিকারের সঙ্গে বৈঠকে : এপিএইচআর প্রতিনিধিদলের সদস্যরা বিকেলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে তাঁরা মিয়ানমার থেকে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা ইস্যু এবং এ ইস্যুতে আসিয়ানভুক্ত দেশের পার্লামেন্টসমূহের ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন।

এ সময় ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, রোহিঙ্গা সংকটের সময়ে সীমান্ত খুলে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্মোচন করেছেন মানবতার নবদুয়ার, স্থাপন করেছেন মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘে সাধারণ পরিষদে রোহিঙ্গা ইস্যুতে ৫ দফা প্রস্তাব উত্থাপন করেছেন। ওই প্রস্তাবের ভিত্তিতেই এ সমস্যার স্থায়ী সমাধান সম্ভব বলে তিনি উল্লেখ করেন। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে বিশ্ব জনমত বৃদ্ধিতে আসিয়ানভুক্ত দেশসমূহের জোরালো ভূমিকার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।



মন্তব্য