kalerkantho


রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন

জনমত গঠনের আশ্বাস দিলেন বিদেশি এমপিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৪ জানুয়ারি, ২০১৮ ০২:১৬



জনমত গঠনের আশ্বাস দিলেন বিদেশি এমপিরা

রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন প্রক্রিয়াটি ত্বরান্বিত করার আহ্বান জানিয়েছে এশিয়ান পার্লামেন্ট ফর হিউম্যান রাইটস (এপিএইচআর) প্রতিনিধিদল। দলের সদস্যরা নিজ নিজ দেশের সরকারের মাধ্যমে রোহিঙ্গা সমস্যার প্রতি আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের দৃষ্টি আকর্ষণ করার উদ্যোগ নেবেন বলে আশ্বাস দিয়েছেন।

ঢাকা সফররত প্রতিনিধিদলটি গতকাল মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবনে অর্থ মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সঙ্গে গোলটেবিল বৈঠকে মিলিত হয়। সংসদীয় কমিটির সভাপতি ড. মো. আব্দুর রাজ্জাকের নেতৃত্বে বৈঠকে জাতীয় সংসদের প্রতিনিধিদলে ছিলেন সংসদ সদস্য ডা. দীপু মনি, এ বি তাজুল ইসলাম, মুহাম্মদ ফারুক খান, মোহাম্মদ হাছান মাহমুদ, আব্দুল মান্নান ও নাহিম রাজ্জাক।

বৈঠকে  মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেন, সম্প্রতি মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের নিজ বাসভূমিতে ফিরিয়ে নেওয়ার উদ্যোগ গ্রহণ করলেও এর অগ্রগতি সনে্তাষজনক নয়। তাই আন্তর্জাতিক বিশ্বের উচিত মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করা, যাতে তারা দ্রুত রোহিঙ্গাদের নিজ দেশে ফিরিয়ে নিতে বাধ্য হয়। আসিয়ানভুক্ত দেশগুলো মিয়ানমার সরকারের ওপর চাপ বৃদ্ধি করে রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসনপ্রক্রিয়া ত্বরান্বিত করতে এবং ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয় থেকে রক্ষা করতে পারে বলে বলেও তিনি উল্লেখ করেন। এপিএইচআর প্রতিনিধিদল রোহিঙ্গা ক্যাম্প পরিদর্শন করার অভিজ্ঞতা বিনিময় করে বলেছে, বাংলাদেশের মানবিক দৃষ্টিভঙ্গির তুলনা হয়। প্রতিনিধিদলে ছিলেন ইন্দোনেশিয়ার এমপি ইভা কুসুমা সানদারি, মালয়েশিয়ার এমপি চার্লেস সান্তিয়াগো, সিঙ্গাপুরের এমপি লুইস এনজি, থাইল্যান্ডের সাবেক এমপি রাচাদা ধানাডাইরড ও মালয়েশিয়ার এমপি মিসেস লিনা মুক্তি।

স্পিকারের সঙ্গে বৈঠক : এপিএইচআর প্রতিনিধিদলের সদস্যরা বিকেলে স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সঙ্গেও সাক্ষাৎ করেন। সাক্ষাৎকালে তাঁরা মিয়ানমার থেকে বলপূর্বক বাস্তুচ্যুত রোহিঙ্গা ইস্যু এবং এ ইস্যুতে আসিয়ানভুক্ত দেশের পার্লামেন্টগুলোর ভূমিকা নিয়ে আলোচনা করেন। এ সময়  স্পিকার বলেন, রোহিঙ্গা সংকটের সময়ে সীমান্ত খুলে দিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা উন্মোচন করেছেন মানবতার নবদুয়ার, স্থাপন করেছেন মানবতার অনন্য দৃষ্টান্ত। রোহিঙ্গা সমস্যা নিয়ে বিশ্বজনমত বৃদ্ধিতে আসিয়ানভুক্ত দেশগুলোর জোরালো ভূমিকার ওপর গুরুত্বারোপ করেন তিনি।



মন্তব্য