kalerkantho


লাইব্রেরি আন্দোলনের মাধ্যমে দেশের চিত্র বদলে দেয়া সম্ভব : অর্থমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ২০:৩৭



লাইব্রেরি আন্দোলনের মাধ্যমে দেশের চিত্র বদলে দেয়া সম্ভব : অর্থমন্ত্রী

গ্রন্থাগার আন্দোলনে জোর দিয়ে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত বলেছেন, দেশের মানুষকে শিক্ষিত করতে লাইব্রেরি আন্দোলন কার্যকর ভূমিকা রাখবে। এর মাধ্যমে সারা দেশের চরিত্র বদলে দেয়া সম্ভব।

তিনি আজ শুক্রবার সন্ধ্যায় সিলেটের নাগরি লিপি বই উৎসবের উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন। নগরীর কবি কাজী নজরুল অডিটরিয়ামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে অর্থমন্ত্রী আরও বলেন, লাইব্রেরি আন্দোলন কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারে। এর চেয়ে ভালো কোন উপায়ে দেশের মানুষকে শিক্ষিত করা কঠিন। 

মসীহ মালিক চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন ভাষা সৈনিক ও সিলেট মেট্রোপলিটন ইউনিভার্সিটির প্রফেসর এমিরেটাস মো. আব্দুল আজিজ, শিশু সাহিত্যিক আলী ইমাম, অধ্যাপক ড. সৌরভ শিকদার, বাংলাদেশ মাতৃভাষা ইনস্টিটিউটের পরিচালক কাবেদুল ইসলাম। স্বাগত বক্তব্য দেন সিলেটি নাগরি লিপি গবেষক ও উৎস প্রকাশন এর নির্বাহী পরিচালক মোস্তফা সেলিম।

অর্থমন্ত্রী বলেন, শিক্ষা শুধু স্কুল ও কলেজে পড়লেই হয় না। এটা একটি চলমান প্রক্রিয়া। এখন দেশে শিক্ষার হার বেড়েছে। ভালো বই হাতে তুলে দিলে যে কেউ পড়তে পারবে।

তিনি বলেন, অবসরে মানুষ বই পড়লে জ্ঞানের প্রসার ঘটে এবং মানসিক বিকাশ ঘটে। এরকম কাজে আমাদের এখনই হাত দেয়া উচিত। এর ফলটা অত্যন্ত কার্যকর ও মূল্যবান হবে। 

আব্দুল মুহিত বলেন, এখন দেশে গ্রন্থাগারের সংখ্যা কম। জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে যেসব গ্রন্থাগার আছে সেগুলোতে নতুন বই থাকে না। অনেকে ব্যক্তি উদ্যোগে গ্রন্থাগার গড়ে তুলছেন। গ্রন্থাগার আন্দোলন শুর হলে ঝিমিয়ে পড়া অনেক লাইব্রেরি পুনরুজ্জীবিত হবে।

অনুষ্ঠানে ‘নাগরি স্যার’ খ্যাত অবসরপ্রাপ্ত অধ্যাপক এরহাসুজ্জামানকে সম্মাননা পুরস্কার প্রদান করা হয়। পরে সিলেটের ২শ’ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও গ্রন্থাগারে সিলেটি নাগরি লিপিতে রচিত ২৫টি বই প্রদান করে উৎস প্রকাশন। এর আগে নাগরি লিপিতে রচিত শিতালং শাহ, আরকুম শাহের তিনটি গানে নৃত্য পরিবেশন করে স্থানীয় নৃত্যশিল্পিরা। উদ্বোধন অনুষ্ঠান শেষে নাগরি লিপিতে রচিত পুথিপাঠ, সংগীতানুষ্ঠান ও মঞ্চ নাটক পরিবেশন করা হয়।



মন্তব্য