kalerkantho


এসডিজি অর্জনে মোবাইল ফোন ভূমিকা রাখতে পারে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ২০:০২



এসডিজি অর্জনে মোবাইল ফোন ভূমিকা রাখতে পারে

মোবাইল ফোন শিল্প ভিশন-২০২১ ও টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জনে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে। বৃহস্পতিবার রাজধানীতে অনুষ্ঠিত এক সংলাপে বক্তারা এ কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে এশিয়া প্যাসিফিক ফর দ্য গ্লোবাল সিস্টেম ফর মোবাইল কমিউনিকেশন এসোসিয়েশনের (জিএসএমএ) প্রধান আলাইসদাইর গ্রান্ট বলেন, এই সংলাপ দীর্ঘমেয়াদী উন্নয়ন লক্ষ্য অর্জনে বাংলাদেশকে সহায়তা করতে মোবাইল প্রযুক্তির গুরুত্ব রয়েছে।

বাংলাদেশ সরকার, সুইডিশ ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্ট কো-অপারেশন এজেন্সি (এসআইডিএ) ও দ্য ইউকে ডিপার্টমেন্ট ফর ইন্টারন্যাশনাল ডেভেলপমেন্টের অংশীদারিত্ব এবং ইউনাইটেড ন্যাশন্স ডেভেলপমেন্ট প্রোগ্রাম (ইউএনডিপি) ও এসোসিয়েশন অব মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অব বাংলাদেশের (এএমটিওবি) সহায়তাায় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এক্সসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) ‘ন্যাশনাল ডায়ালগ ফর মোবাইল সার্ভিসেস এক্সসেস এসডিজি এ্যাসিভমেন্ট ইন বাংলাদেশ’ অনুষ্ঠানের আয়োজন করে। এটি জিএসএমএ’র একটি উদ্যোগ।

বক্তারা সহজলভ্যভাবে নাগরিকদের ক্ষমতায়নে বাণিজ্যিকভাবে টেকসই মোবাইল সার্ভিস কিভাবে ব্যবহার করা যায় তার ওপর আলোকপাত করেন।

আলাসদাইর গ্রান্ট বলেন, বাণিজ্য ও সামাজিক সম্পৃক্ততা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সম্ভাবনা চিহ্নিত করার মাধ্যমে সরকার ও মোবাইল কোম্পানিগুলো একত্রে কাজ করে ২০৩০ এজেন্ডা বাস্তবায়ন করতে পারে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশের নাগরিকদের জীবনমান উন্নত করা সম্ভব।

কৃষিমন্ত্রী বেগম মতিয়া চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজসম্পদ বিষয়ক উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক মূখ্য সমন্বয়ক আবুল কালাম আজাদ, ইউএনডিপি’র কান্ট্রি ডিরেক্টর সুদীপ্ত মুখার্জি, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের মহাপরিচালক (প্রশাসন) ও এটুআই প্রোগ্রামের প্রকল্প পরিচালক কবির বিন আনোয়ার এবং এটুআই’র পলিসি এ্যাডভাইজার অনির চৌধুরী অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন।



মন্তব্য