kalerkantho


সমাজ বিজ্ঞান চর্চা ও গবেষণায় গুরুত্বারোপ স্পিকারের

নিজস্ব প্রতিবেদন    

১৯ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৯:৪০



সমাজ বিজ্ঞান চর্চা ও গবেষণায় গুরুত্বারোপ স্পিকারের

উন্নত সমাজ গড়তে সমাজ বিজ্ঞানের চর্চা ও সমাজ গবেষণার ওপর গুরুত্বারোপ করেছেন স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী, এমপি।

স্পিকার বলেন, 'সমাজ অনুধাবনে সমাজ বিজ্ঞান চর্চার বিকল্প নেই। চর্চার মাধ্যমে সমাজকে প্রতিষ্ঠিত করার চিত্র সবার সামনে তুলে ধরতে হবে। যেখান থেকে রাষ্ট্র বিজ্ঞানী ও রাষ্ট্র পরিচালনার সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিরা দিক নির্দেশনা পাবেন বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

আজ শুক্রবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে আয়োজিত আন্তর্জাতিক সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন স্পিকার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের ৬০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত দুই দিনের এই সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারপারসন প্রফেসর নেহাল করিম। 

আরো পড়ুন বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করুন : স্পিকার 

সম্মেলনে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইন্টারন্যাশনাল সোশিওলজিক্যাল অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক সভাপতি পদ্মভূষণ পুরস্কারপ্রাপ্ত সমাজ বিজ্ঞানী প্রফেসর টি কে ওম্মেন। বক্তব্য দেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর নাসরিন আহমেদ, সমাজ বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর সাদেকা হালিম, প্রখ্যাত সমাজ বিজ্ঞানী প্রফেসর কে এ এম সাদউদ্দিন, প্রফেসর অনুপম সেন, প্রফেসর মনিরুল ইসলাম খান প্রমুখ। 

আরো পড়ুন শ্রেণিকক্ষে পাঠদান নিশ্চিতের আহ্বান জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রীর 

স্পিকার বলেন, 'বিশ্বায়নের এই যুগে সমাজ দ্রুত পরিবর্তিত হচ্ছে। দক্ষিণ এশিয়া সেই পরিবর্তন থেকে বিচ্ছিন্ন নয়। তথ্য প্রযুক্তির উন্নয়ন, ক্লাইমেট চেঞ্জ, মার্জিনালাইজেশন অব পোভার্টি অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট এবং ফেমিনাইজেশন সমাজ পরিবর্তনে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা রাখছে। একটি উন্নত ও সমৃদ্ধ দেশ গড়তে ওই বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে পরিবর্তনশীল পৃথিবীর সঙ্গে তাল মিলিয়ে এগিয়ে যেতে হবে।' 

ড. শিরীন শারমিন বলেন, প্রতিষ্ঠার ৬০ বছরে সমাজ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে অনেক মেধাবী শিক্ষার্থী পাস করেছেন। যারা দেশে ও বিদেশে অনেক গুরুত্বপূর্ণ পদে দায়িত্ব পালন করছেন। তাদের দৃষ্টান্তকে তুলে ধরে সামাজিক মূল্যবোধ প্রতিষ্ঠায় সমাজ বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের আরো বেশি দায়িত্বশীল হবে। তিনি সমাজ বিজ্ঞান চর্চায় আরো বেশি মনোযোগী হওয়ার জন্য শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের প্রতি আহ্বান জানান।



মন্তব্য