kalerkantho


সরকার মাংস আমদানি করবে না : প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৮:১৯



সরকার মাংস আমদানি করবে না : প্রাণিসম্পদমন্ত্রী

দেশীয় খামারিদের কথা মাথায় রেখে সরকার মাংস আমদানি করবে না বলে জানিয়েছেন মৎস্য ও প্রাণিসম্পদমন্ত্রী নারায়ন চন্দ্র চন্দ। তিনি আরও জানান, মাংস আমদানি প্রতিরোধে প্রয়োজনে এ সংক্রান্ত আইন সংশোধন করা হবে। প্রাণিসেবা সপ্তাহ উপলক্ষে আজ বুধবার সচিবালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

নারায়ন বলেন, “গতকাল (মঙ্গলবার) বাণিজ্যমন্ত্রীর সঙ্গে আমার কথা হয়েছে, তিনিও না আনার পক্ষে। সরকারিভাবে আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ যে আমরা মাংস আমদানি করব না।

তিনি আরো বলেন, আমাদের (বছরে) ৭৯ লাখ টন মাংস প্রয়োজন, আমাদের অলরেডি ৭১ লাখ টন উৎপাদন হয়েছে। মাংস আনলে আমার খামারিরা মারা পড়বে, এই শিল্পটা ধ্বংস হয়ে যাবে।

এ সময় ট্যারিফ কমিশনের প্রতিবেদন অনুযায়ী দেশে কম দামে মাংস আমদানি হওয়ার বিষয়ে সাংবাদিকরা প্রশ্ন করলে প্রাণিসম্পদমন্ত্রী বলেন, “মাংস আমদানির বিষয়টি আমরা জানি না, এ বিষয়ে আমরা ব্যবস্থা নেব। যেহেতু আমরা (মাংস আমদানি) চাচ্ছি না এবং এতে (মাংস আমদানি) যদি আইনে বাধা না থাকে তবে সেটা প্রতিরোধ করতে হবে, আইন পরিবর্তন করতে হবে। সুযোগ থাকলে সেই সুযোগ রোধ করার ব্যবস্থা নিতে হবে।

চাঁদাবাজিসহ নানা কারণে মাংসের দাম বেড়েছে বলে ব্যবসায়ীরা অভিযোগ করেছেন, এ বিষয়ে কি পদক্ষেপ নেবেন- এই প্রশ্নে মন্ত্রী বলেন, “এটা শুধু এককভাবে আমাদের মন্ত্রণালয়ের উপর নির্ভর করবে না। এরসঙ্গে বাণিজ্য মন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জড়িত। এই ভিত্তিতে আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা করে আমরা পদক্ষেপ নেব।”

এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, উৎপাদন ব্যয় কমিয়ে মাংসের দাম কমানোর বিষয়ে আমরা ব্যবস্থা নিচ্ছি। আমরা সচেতন আছি জনগণ যাতে স্বল্প ও ন্যায্য মূল্যে মাংস খেতে পারে এবং খামারিরা টিকে থাকতে পারে।

ভ্যাটেরিনারি হাসপাতালে মানুষ গবাদিপশুর চিকিৎসা সঠিকভাবে পায় না বলে অভিযোগের বিষয়ে নারায়ন চন্দ্র চন্দ বলেন, মাঠ পর্যায়ে আমাদের কর্মকর্তারা সেবামুখী। কিন্তু লোকবল সঙ্কট রয়েছে, আমাদের জনবল বাড়ানো দরকার।

জানা গেছে, আগামী ২০ জানুয়ারি বিকাল ৩টায় রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ প্রাণিসম্পদ সেবা সপ্তাহের উদ্বোধন করবেন।



মন্তব্য