kalerkantho


জঙ্গিবিরোধী অভিযানের স্বীকৃতি স্বরূপ সাহসিকতার পুরস্কার পেলেন রিপন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৭:৪০



জঙ্গিবিরোধী অভিযানের স্বীকৃতি স্বরূপ সাহসিকতার পুরস্কার পেলেন রিপন

আইন শৃঙ্খলা রক্ষা, অপরাধ দমন ও জঙ্গিবিরোধী অভিযানে সাহসিকতা ও সাফল্যের স্বীকৃতি স্বরূপ প্রেসিডেন্ট পুলিশ মডেল (সাহসিকতা)পদক পেয়েছেন কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের সিনিয়র সহকারী পুলিশ কমিশনার  শাহিদুর রহমান রিপন।

৮ই জানুয়ারি ২০১৮ রাজধানীর রাজারবাগ পুলিশ লাইনসে পাঁচ দিনব্যাপী পুলিশ সপ্তাহ-২০১৮ এর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ সম্মাননা প্রদান করেন। শাহিদুর রহমান রিপনের বিভিন্ন সাহসিকতা ও ভাল কাজের মধ্যে রয়েছে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে হত্যাচেষ্টা মামলার প্রধান আসামি মুফতি হান্নানের জেলখানা থেকে পলায়নের পরিকল্পনা ব্যর্থ করে দেওয়া। তিনি হলি আর্টিজান মামলার প্রথমদিকে তদন্ত তদারক কর্মকর্তা ছিলেন।

এছাড়াও ঝিনাইদহে জঙ্গি আস্তানার সন্ধান ও পরবর্তীতে সেখানে সাহসিকতার সাথে সফল ভাবে “অপারেশন সাউথ প” পরিচালনা করেন এবং বিপুল পরিমাণ  বোমা ও বিস্ফোরক উদ্ধার করেন।

 শাহিদুর রহমান রিপন বলেন, 'যে কোন কাজের স্বীকৃতি কর্মস্পৃহা বৃদ্ধি করে এবং নতুন উদ্যমে কাজ করার অনুপ্রেরণা দেয়। পুলিশ অফিসার হিসেবে ভাল কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ পিপিএম ((সাহসিকতা) প্রাপ্তি আমার কর্মস্পৃহা বৃদ্ধি করার পাশাপাশি বাংলাদেশ পুলিশ, রাষ্ট্র ও দেশের মানুষের প্রতি দায়বদ্ধতাও বাড়িয়ে দিয়েছে বহুগুণ।

তিনি বলেন, এই পদক ও সম্মাননা  দেশের প্রতি আমার দায়িত্ববোধকে আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। আগামী দিন গুলোতে নিজের সর্বোচ্চ দিয়ে দেশের জন্য কাজ করে যাব।

 এবছর সাহসিকতা ও কর্মদক্ষতার বিচারে ১৮২ জন পুলিশ সদস্যকে বাংলাদেশ পুলিশ মেডেল (বিপিএম) ও প্রেসিডেন্ট পুলিশ মডেল (পিপিএম) প্রদান করা হয়েছে। জঙ্গিবিরোধী অভিযান সাফল্যের স্বীকৃতির জন্য পদক পেয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের জঙ্গিবিরোধী বিশেষ শাখা কাউন্টার টেরোরিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল ক্রাইম ইউনিটের (সিটিটিসি) ৩৬ সদস্যসহ ১০৬ জন পুলিশ সদস্য।

উল্লেখ্য, শাহিদুর রহমান রিপন ঝিনাইদহ জেলার কৃতি সন্তান। ৩১তম বিসিএস এ পুলিশ ক্যাডারে যোগদান করেন। তিনি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়,কুষ্টিয়াতে অর্থনীতি বিভাগে পড়ালেখা  করেছেন।

 



মন্তব্য