kalerkantho


ওসি গাজী রুহুল, ঘুষ খেতে ব্যাকুল! শুনুন সেই ফোনালাপ

হায়দার আলী   

১ জানুয়ারি, ২০১৮ ১৮:২১



ওসি গাজী রুহুল, ঘুষ খেতে ব্যাকুল! শুনুন সেই ফোনালাপ

ব্যবসায়ী : আসসালামু আলাইকুম বস।

ওসি : ওয়াআলাইকুম আসসালাম, কে?

ব্যবসায়ী : বস, আসলাম শেখ বলছি ঢাকা থেকে।

ওসি : আজকে কী বার?

ব্যবসায়ী : আজকে বস বুধবার, সরি বস।

ওসি : হা হা হা হা হা... এ রকমই সরি হয় মানুষের।

ব্যবসায়ী : বস, এখন আমি টিভিটা দেখছি শোরুমে।

ওসি : অ্যা...অ্যা...অ্যা।

ব্যবসায়ী : বস, এখন আমি যদি ৪৮ কিংবা ৪৯ ইঞ্চি টিভি দিই তাতে কি কোনো সমস্যা হবে?

ওসি : না, ও হা আমি নিতাম না। আমার কাছে এখন ৫২ ইঞ্চি একটা আছে, আমার এখন ৬৫ ইঞ্চি টিভি দরকার।

ব্যবসায়ী : তার মানে বর্তমানে আমার ক্লোজিং মাস। আমার পোল্ট্রিতে অনেক সমস্যা, প্রতি মাসে লোকসান দিচ্ছি।

ওসি : টাকা কম হলে তাহলে নগদ টাকা দিয়ে দেন। বাকি কিছু লাগলে অন্য আরেকজনের কাছ থেকে নিয়ে নিবনে।

ব্যবসায়ী : আচ্ছা বস এটা হলে একটু চেষ্টা করে দেখতে পারি।

ওসি : ৬৫ ইঞ্চি টিভির দাম কিন্তু তিন লাখ ৬৫ হাজার টাকা। আপনি ৫২ ইঞ্চি টিভির দাম দিয়ে দেন আমি আরেকজনের কাছ থেকে বাকিটা নিয়ে নিবনে।

ব্যবসায়ী : স্যার টিভির দাম ৬৫ হাজার টাকা?

ওসি : না, না, তিন লাখ ৬৫ হাজার টাকা।

ব্যবসায়ী : ও আচ্ছা।

ওসি : ৫২ ইঞ্চি টিভির দামই তো দেড় লাখ টাকার মতো।

ব্যবসায়ী : স্যার আমি তো কষ্টে আছি। এত টাকা দিব কিভাবে? আর বুঝতেও পারি নাই টিভির দাম এত।

ওসি : আচ্ছা আপনি যেটা পারেন সেটাই দিয়ে যাইয়েন আর কি। ঠিক আছে ভাই।

ব্যবসায়ী : আচ্ছা ভাইজান।

নিজ কানেই শুনুন নরসিংদীর মনোহরদী থানার ওসি গাজী রুহুল ইমামের ঘুষের কথা :

গত ২৭ ডিসেম্বর রাত ৮টা ৫১ মিনিট থেকে নরসিংদীর মনোহরদী থানার ওসি গাজী রুহুল ইমামের সঙ্গে ব্যবসায়ী আসলাম শেখের এই ফোনালাপ হয়। 

মুক্তিযোদ্ধা শেখ আবদুর রহমান লক্ষুর দুই ছেলে আসলাম শেখ ও মো. ছালাম শেখকে ভুয়া ডাকাতির মামলায় ফাঁসানোর ভয় দেখিয়ে ঘুষ হিসেবে ওই টিভি চেয়েছিলেন ওসি রুহুল ইমাম। দাবি অনুযায়ী টেলিভিশন দিতে না পারায় মুক্তিযোদ্ধার বাড়িতে পুলিশ পাঠিয়ে তাঁর স্ত্রী ও পরিবারের সদস্যদের অশ্লীল গালাগাল করান তিনি। এমনকি টেলিভিশন দিতে না পারলে এলাকাছাড়া করা এবং ডাকাতি মামলায় জেল খাটানো হবে বলেও হুমকি দিয়েছেন ওসি।

বিস্তারিত পড়ুন : ওসির দাবি ৬৫ ইঞ্চি টিভি



মন্তব্য