kalerkantho


সংসদে সমাপনী ভাষণে বিরোধী দলীয় নেতা

মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২৩ নভেম্বর, ২০১৭ ২১:৫০



মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে

একের পর এক গুম-খুনের ঘটনায় সাধারণ মানুষ নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে বলে দাবি করেছেন বিরোধী দলীয় নেতা বেগম রওশন এরশাদ। তিনি বলেছেন, ঘরে বসে মানুষ খুন হচ্ছে।

অনেকেই গুম হয়ে যাচ্ছে। এটা কারা দেখবে? তাদের নিরাপত্তা দিবে কে?

আজ বৃহস্পতিবার রাতে সংসদের ১৮তম অধিবেশনে সমাপনী ভাষণে তিনি একথা বলেন। স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে তিনি হঠাত্ করে মানুষের গুম হওয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, নিখোঁজ হয়ে যাচ্ছে মানুষ। মুক্তিপণ আদায় করা হচ্ছে। আমি যা বলছি, তা পত্রিকায় প্রকাশিত তথ্য থেকে বলছি। এসব কোন বানানো কথা নয়। তিনি আরো বলেন, গত ৫ বছরের নিখোঁজ হয়েছে ৫১৯জন মানুষ। তারা কিভাবে নিখোঁজ হলো? কদিন আগে অনিরুদ্ধ রায় ফিরে আসল।

সে কোথায় ছিল? কে তাদের নিয়ে গেল? অন্যরা ফিরলো না। তাহলে বোঝা যাচ্ছে, ঘরে বসে মানুষ খুন হচ্ছে। নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছে। এই নিরাপত্তা দেওয়ার দায়িত্ব কার-এটাই আমার প্রশ্ন? কাজেই এ বিষয়ে সতর্ক দৃষ্টি রাখা দরকার।

মাদকের প্রসারে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিরোধী দলীয় নেতা বলেন, মাদক থেকে তরুণ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে। ইয়াবার পর এখন ক্যাটামিন নামে নতুন মাদক এসেছে। নাকের সামনে স্প্রে করে নেশা করার নতুন পদ্ধতি। এটা বন্ধ করতে হবে।

তরুণ প্রজন্মকে রক্ষায় রাত ১০টার পর হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইভার, ম্যাসেঞ্জার এসব বন্ধ করে দেওয়ার আহবান জানিয়ে রওশন এরশাদ বলেন, তথ্য প্রযুক্তি তরুণ প্রজন্মেও জন্য আশির্বাদ এটা যেমন সত্য তেমনি এর অপব্যহার আমাদের দেশে ব্যপক হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। সৌদি আরবে এসব নাই। চায়নাতেও নাই। স্মার্টফোন থেকে আমাদের তরুণ প্রজন্মকে রক্ষা করতে হবে। তিরি বলেন, ছেলে মেয়েরা খুব অল্প বয়সে স্মার্টফোন, ট্যাব হাতের কাছে পাচ্ছে। যা দিয়ে গেইম, ফেইসবুক সহ নানা ইন্টারনেট বিত্তিক অপকর্মে লপ্তি হচ্ছে। যা এখন ঘরে ঘরে অশান্তি তৈরি করছে। সামাজিকব্যাধি হিসেবে ছড়িয়ে পড়েছে। তিনি আরো বলেন, সারারাত ধরে স্মার্ট ফোন দেখে। ব্লু হোয়েলে আত্মহত্যা করেছে। এ বিষয়ে সতর্ক হতে হবে। বাচ্চাদের বাঁচাতে হবে।

বিনামূল্যে শিক্ষার্থীদের দেওয়া বইয়ের মান নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিরোধী দলীয় নেতা। তিনি বলেন, এসব নিম্নমানের বই কতদিন টিকবে? নিম্নমানের ছাপা। বইয়ের ছবি হাতের ঘষায় উঠে যাচ্ছে। এ বিষয়ে সরকারের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন তিনি।


মন্তব্য