kalerkantho


প্রধান বিচারপতি নিয়োগের বিষয়টি রাষ্ট্রপতির এখতিয়ারে : আইনমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৩ নভেম্বর, ২০১৭ ১৮:৪৭



প্রধান বিচারপতি নিয়োগের বিষয়টি রাষ্ট্রপতির এখতিয়ারে : আইনমন্ত্রী

আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক বলেছেন, প্রধান বিচারপতি নিয়োগের বিষয়টি রাষ্ট্রপতির এখতিয়ারে। তিনি যখন নিয়োগ দিবেন তখনই প্রধান বিচারপতি নিয়োগপ্রাপ্ত হবেন।

এ ব্যাপারে তাঁর কোন এখতিয়ার নাই এবং তাই এ বিষয়ে তিনি কিছু বলতেও পারবেন না। তবে তিনি মনে করেন, রাষ্ট্রপতি প্রধান বিচারপতির পদটি বেশিদিন খালি রাখবেন না।  

আইনমন্ত্রী আজ বৃহস্পতিবার বিচার প্রশাসন প্রশিক্ষণ ইনস্টিটিউটে অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ এবং সমপর্যায়ের বিচারকদের প্রশিক্ষণ কোর্সের একটি অধিবেশন বক্তৃতা শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে এসব কথা বলেন।  

অধিবেশনে তিনি অ্যান্টি-করাপশন অ্যাক্ট, ২০০৪; ক্রিমিনাল ল’ (সংশোধিত), ১৯৫৮ এবং প্রিভেনশন অব কোরাপশন অ্যাক্ট, ১৯৪৭ নিয়ে আলোচনা করেন।

প্রধান বিচারপতি নিয়োগ দেয়ার পূর্বে অন্যান্য বিচারপতি নিয়োগ দেয়া যাবে কি-না এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, আমাদের সংবিধানের ৯৭ অনুচ্ছেদে বলা আছে অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি প্রধান বিচারপতির অনুরূপ ক্ষমতা পালন করতে পারবেন। অনুরূপ মানে হচ্ছে প্রধান বিচারপতি যা যা করতে পারতোন, তিনি (অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি) সেটাই করবেন।

আনিসুল হক বলেন, ‘একটু পেছনে তাকালে দেখা যাবে, ১৯৯০ সালের ডিসেম্বরে প্রধান বিচারপতি শাহাবুদ্দিন আহমদ কেয়ারটেকার সরকারের চিফ অ্যাডভাইজর হয়েছিলেন। পরে তিনি রাষ্ট্রপতিও হয়েছিলেন। তখন একজন অ্যাক্টিং চিফ জাস্টিস ছিলেন।

তিনি অ্যাপয়েন্টমেন্টও দিয়েছেন। শপথও পড়িয়েছেন। এটা যে নজির নাই তা না। নজির আছে। অনুরূপ কথার উপরে জোর দিতে হবে। ’

আইনমন্ত্রী আরও বলেন, ‘যিনি এখন অস্থায়ী প্রধান বিচারপতি তিনি কিন্তু একটা শপথ নিয়েছেন, আপিল বিভাগের বিচারপতি হিসেবে। অনুরূপ মানে হচ্ছে- চিফ জাস্টিসের সকল ক্ষমতা তিনি পালন করতে পারবেন। সেখানে কিন্তু কোনো বিভাজন করে দেয়া হয় নাই। তিনি কি করতে পারবেন কি পারবেন না। ’

প্রধান বিচারপতির দায়িত্ব যিনি পালন করছেন তিনি শপথ পড়াতে পারবেন কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটা নিয়ে বিতর্ক সৃষ্টি করার দরকার নাই। আমার মনে হয় সব কিছু দেখা হচ্ছে।  

তিনি বলেন, অধস্তন আদালতের বিচারকদের শৃঙ্খলা বিধির খসড়া সুপ্রিম কোর্টে পাঠানো হয়েছে । সুপ্রিম কোর্ট তা দেখছে। এটি সুপ্রিম কোর্ট থেকে আসা মাত্রই রাষ্ট্রপতির দপ্তরে পাঠানো হবে।  

ষোড়শ সংশোধনীর রিভিউয়ের বিষয়ে তিনি বলেন, রিভিউ পিটিশন শোনার জন্য আইনে যা যা নিয়ম আছে তার সবগুলো পালন করা হবে। রিভিউ পিটিশন কবে নাগাদ দাখিল করা হবে এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, এটি অ্যাটর্নি জেনারেল সাহেব জানেন।


মন্তব্য