kalerkantho


পিকেএসএফ-হেল্প এজ সম্মেলন

বৃদ্ধ মা-বাবার যত্নে অক্ষম সন্তানদের সহায়তার প্রস্তাব

নিজস্ব প্রতিবেদক    

২৩ অক্টোবর, ২০১৭ ০৫:০৩



বৃদ্ধ মা-বাবার যত্নে অক্ষম সন্তানদের সহায়তার প্রস্তাব

পারিবারিক বন্ধন শক্ত হওয়া সত্ত্বেও দেশে এমন অনেক পরিবার আছে, যেখানে সন্তানরা নিজেদের আয় কম থাকার কারণে বৃদ্ধ মা-বাবার আশনুরূপ যত্ন করতে পারে না। এক্ষেত্রে ওই সব সন্তানকে আর্থিক সহায়তা দেওয়া যেতে পারে।

আবার সক্ষমতা থাকা সত্ত্বেও যে সব সন্তান বৃদ্ধ মা-বাবার যত্ন ও দাযিত্ব নেয় না, তাদেরকেও শাস্তির আওতা আনতে হবে।  

গতকাল রবিবার রাজধানীতে পল্লী কর্ম-সহায়ক ফাউন্ডেশন (পিকেএসএফ) কার্যালয়ে পিকেএসএফ ও হেল্পএজ ইন্টারন্যাশনাল যৌথভাবে আয়োজিত এক সম্মেলনে বক্তারা এসব কথা বলেন। প্রবীণ জনগোষ্ঠীর সমস্যা নিরসণে বাংলাদেশ সরকারের প্রণীত নীতিমালা ও গৃহিত পদক্ষেপ নিয়ে এ আলোচনা অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।

অনুষ্ঠানে প্রবীণ জনগোষ্ঠীর জীবনমান উন্নয়নে পিকেএসএফ এবং হেল্পএজ ইন্টারন্যাশনাল বাংলাদেশের কর্ম-কৌশল ও অভিজ্ঞতা বিনিময়সহ প্রবীণ জনগোষ্ঠীর জন্য প্রদেয় বিভিন্ন সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী বিষয়েও আলোচনা হয়।

পিকেএসএফ’র সভাপতি ড. কাজী খলীকুজ্জমান আহমদের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের চিফ হুইপ আ. স. ম. ফিরোজ। দিনব্যাপী অনুষ্ঠিত এ সম্মেলনে আরো বক্তব্য দেন পিকেএসএফ-এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবদুল করিম, পিকেএসএফের পরিচলানা পর্ষদের সদস্য ড. এ. কে. এম. নূর-উন-নবী এবং হেল্পএজ ইন্টারন্যাশনাল-এর এশিয়া প্যাসিফিক অঞ্চলের পরিচালক এডোয়ার্দো ক্লাইন।

কাজী খলীকুজ্জমান বলেন, বাংলাদেশে ৬০ বছর বা তার বেশি বয়সের প্রবীণরা কর্মে নিয়োজিত থাকলেও রুগ্ন স্বাস্থের কারণে আশারূপ কাজ করতে পারে না। এতে তাদের সুস্থ জীবন যাপন দূরহ হয়ে পড়ে। পিকেএসএফ এ নিয়ে কাজ করে যাচ্ছে।

তিনি বলেন, দীর্ঘ পথ পাড়ি দিয়ে আসা প্রবীণদের আভিঞ্জতা তরুণদের আগামী দিনের পথ চলার পাথেয়। তাই প্রবীণদের অবহেলা না করে মূল্যায়ন করতে হবে।   

প্রধান অতিথি বলেন, পারিবারিক বন্ধন নিয়ে সবাইকে সচেতন হতে হবে। তিনি বলেন, বাংলাদেশ এগিয়েছে। প্রবীণদের বয়স্ক ভাতা দেয়া হয়। আমাদের জাতি মানবিক। নিজের দেশের সঙ্গে সঙ্গে অন্য দেশ থেকে আসা রোহিঙ্গাদেও আমরা দেখা শোনার চেষ্টা করছি।  


মন্তব্য