kalerkantho


যানজটমুক্ত ঢাকা গড়তে জনসচেতনতা বৃদ্ধির আহবান রাষ্ট্রপতির

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ ১৮:৩৩



যানজটমুক্ত ঢাকা গড়তে জনসচেতনতা বৃদ্ধির আহবান রাষ্ট্রপতির

রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ যানজটমুক্ত ঢাকা গড়ার পাশাপাশি নির্মল, স্বাস্থ্যকর ও উন্নত পরিবেশ বজায় রাখতে ট্রাফিক আইন মেনে চলায় জনসচেতনতা বৃদ্ধিতে প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহণে সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস উপলক্ষে আজ এক বাণীতে তিনি এ আহবান জানান।

 

যানজট নিরসন এবং বায়ু ও শব্দদূষণ হ্রাসে ব্যক্তিগত গাড়ির পরিবর্তে গণপরিবহণ ব্যবহারে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ের অধীন ঢাকা পরিবহণ সমন্বয় কর্তৃপক্ষ (ডিটিসিএ) ও সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন সংস্থা সম্মিলিতভাবে ২২ সেপ্টেম্বর ‘বিশ্ব ব্যক্তিগত গাড়িমুক্ত দিবস ২০১৭’ উদ্যাপন করছে জেনে রাষ্ট্রপতি সন্তোষ প্রকাশ করেন।  

তিনি বলেন, উন্নত যোগাযোগ ব্যবস্থা উন্নয়নের পূর্বশর্ত। ঢাকাসহ দেশের বড় শহরগুলোতে প্রায়শই এমনকি মহাসড়কেও কখনও কখনও যানজট লক্ষ্য করা যায়। একটু বৃষ্টি হলেই ঢাকা শহরে যানজট অসহনীয় পর্যায়ে পৌঁছে। ঢাকা শহরে প্রতিনিয়ত ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার বাড়ছে যা যানজট সৃষ্টির অন্যতম কারণ হিসেবে বিবেচিত। যানজটের ফলে নষ্ট হচ্ছে মূল্যবান কর্মঘণ্টা। সেই সাথে বাড়ছে শব্দ ও বায়ু দূষণ। বাড়ছে জ্বালানির অপচয়ও।  

আবদুল হামিদ বলেন, বিশ্বের বড় বড় শহরগুলোতে যানজট এক বিশাল চ্যালেঞ্জ।

এ চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় ব্যক্তিগত গাড়ি ব্যবহারের পরিবর্তে গণপরিবহণ, মেট্রোরেল, নদী বা খালপথ, বাইসাইকেল এমনকি নিকটবর্তী স্থানে যেতে পায়ে হাঁটাকে উৎসাহিত করা হচ্ছে। উন্নত বিশ্বের ন্যায় আধুনিক গণপরিবহণ ব্যবস্থার প্রবর্তন ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহারকে নিরুৎসাহিত করতে কার্যকর ভূমিকা রাখবে বলে তিনি দৃঢ় আশাবাদ ব্যক্ত করেন। তিনি বলেন, পথচারী ও সাইকেল আরোহীদের জন্য নিরাপদ, স্বাচ্ছন্দ্যময় ও আনন্দদায়ক চলাচলের ব্যবস্থা করা অত্যন্ত জরুরি।

রাষ্ট্রপতি বলেন, সরকার ইতোমধ্যে গণপরিবহন ব্যবস্থার উন্নয়নে মেট্রোরেল স্থাপন, ঢাকা ঘিরে নৌপথ, মহানগরীতে ফ্লাইওভার, আন্ডারপাসসহ বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। মেট্রোরেল প্রকল্প সম্পন্ন হলে মানুষ স্বাচ্ছন্দ্যে যাতায়াত করতে পারবে এবং ঢাকা শহরে যানজট নিরসন, বায়ু ও শব্দদূষণ হ্রাস পাবে বলে সকলের প্রত্যাশা।  

বিশ্ব গাড়িমুক্ত দিবসের এ বছরের প্রতিপাদ্য ‘যানজট ও দূষণমুক্ত নগরায়নে প্রয়োজন, গণপরিবহণ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং ব্যক্তিগত গাড়ির ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ’ অত্যন্ত সময়োপযোগী হয়েছে বলে রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করেন।


মন্তব্য