kalerkantho


অগ্রিম টিকিটের জন্য কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ আগস্ট, ২০১৭ ১৩:১৬



অগ্রিম টিকিটের জন্য কমলাপুরে উপচে পড়া ভিড়

অগ্রিম টিকিটের জন্য কমলাপুর রেলস্টেশনে মানুষের উপচে পড়া ভিড়। আজ শনিবার বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রথম দিনের তুলনায় দ্বিতীয় দিনে টিকিট প্রত্যাশী মানুষের ভিড় বাড়তে থাকে।

এর মধ্যে অনেকেই ভোর রাত থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনে টিকিট কাউন্টারের সামনে লাইনে দাঁড়িয়েছেন।

আজ সকাল ৮টা থেকে কমলাপুর রেলস্টেশনের ২৩টি কাউন্টার থেকে ২৮ আগস্টের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে। আজ যারা আগে লাইনে দাঁড়িয়েছিলেন তাদের অনেকেই ইতিমধ্যে টিকিট পেয়েছেন। টিকিট পাওয়ার সঙ্গে সঙ্গে অনেককেই আনন্দ প্রকাশ করতে দেখা গেছে।

এদিন রংপুর এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিটের জন্য টিকেট কাউন্টারে অপেক্ষা করছিলেন বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী আসিফ আহমেদ। তিনি বলেন, ২৮ তারিখের টিকিটের জন্য সকালে লাইনে দাঁড়িয়েছি। আজ টিকিট প্রত্যাশীদের প্রচুর ভিড়, এতো ভিড়ের মাঝে টিকিট পাবো কি না তা নিয়েও সংশয় আছে।

তিনি বলেন, অন্যবার বাসে যাই কিন্তু এবার সড়কের অবস্থা, যানজটের শঙ্কায় ট্রেনে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে রাজশাহীগামী সিল্কসিটি ট্রেনের টিকিট হাতে পেয়েছেন চাকরিজীবী নাজিম উদ্দিন।

তবুও তিনি ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, রেলওয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী একজন যাত্রী সর্বোচ্চ ৪টি করে টিকিট কিনতে পারবেন। কিন্তু আমার পরিবারের সদস্য সংখ্যা ছয়জন। যে কারণে আমি আমাদের পরিবারের দুইজনকে টিকিটের লাইনে দাঁড়াতে হয়েছে, এটা খুবই বিরক্তিকর। টিকিট কাউন্টারে যারা দায়িত্বে আছেন তারা খুবই ধীর গতিতে নিজেদের কাজ করছেন। একজনকে টিকিট দিতেই তারা অনেক সময় নিচ্ছেন। এতে করে পিছনে অপেক্ষমান মানুষদের বিরক্তি বাড়ছে। টিকিট সংগ্রহের জন্য প্রতিবারই ভোগান্তি পোহাতে হয় ঘরমুখী মানুষদের। সব কিছু বিবেচনা করে অনলাইনে টিকিটের সংখ্যা বাড়ানো উচিত।

এ ব্যাপারে কমালাপুর রেলস্টেশনের ম্যানেজার সীতাংশু চক্রবর্তী বলেন, টিকিট প্রত্যাশী মানুষরা সুশৃঙ্খলভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে ট্রেনের টিকিট কিনতে পারছেন। কোনো যাত্রী এখন পর্যন্ত কোনো ধরনের অভিযোগ জানাননি। কমলাপুর থেকে প্রতিদিন ৩১টি ট্রেনে ২২ হাজার ৪৯৬টি টিকিট বিক্রি করা হবে। এর মধ্যে ২৫ শতাংশ অনলাইনে, ৫ শতাংশ ভিআইপি, ৫ শতাংশ রেলওয়ে কর্মকর্মতা-কর্মচারীদের জন্য বরাদ্দ, বাকি ৬৫ শতাংশ টিকিট কাউন্টার থেকে বিক্রি হবে।


মন্তব্য