kalerkantho


সীতাকুণ্ডে দুই ‘জঙ্গি আস্তানায়’ অভিযান, গোলাগুলি চলছে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ মার্চ, ২০১৭ ১৮:৩১



সীতাকুণ্ডে দুই ‘জঙ্গি আস্তানায়’ অভিযান, গোলাগুলি চলছে

চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ড পৌর সদরের আমিরাবাদ ও প্রেমতলায় ‘জঙ্গি আস্তানার’ সন্ধান পাওয়া গেছে। এর মধ্যে আমিরাবাদ এলাকা থেকে ‘জঙ্গি’ দম্পতিকে গ্রেনেড, বোমা তৈরির সরঞ্জাম ও অস্ত্রসহ আটক করা হয়েছে। তাদের সঙ্গে দুই মাস বয়সী এক শিশুও রয়েছে। অন্যদিকে প্রেমতলায় পুলিশের সঙ্গে ‘জঙ্গি’দের গোলাগুলি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

থানা পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আজ বুধবার দুপুর ৩টার দিকে সীতাকুণ্ডের পৌর সদরের আমিরাবাদ এলাকার সাধন কুঠি নামের একটি বাড়িতে অভিযান চালায় পুলিশ। এ সময় ওই বাড়ির নিচতলা থেকে দুজন ‘জঙ্গি’কে আটক করা হয়। এর মধ্যে পুরুষ ব্যক্তিটি নিজেকে জসিম উদ্দিন নামে পরিচয় দিয়ে ওই বাড়িটি ভাড়া নিয়েছেন। আর তার স্ত্রীর নাম আর্জিনা। তাঁদের সঙ্গে দু মাস বয়সী এক শিশুপুত্র রয়েছে। আর্জিনার কোমরে বোমা বাঁধা ছিল।

পুলিশ দাবি করছে, বাসায় প্রবেশের চেষ্টা করার সময় তাদের বাধা দেন জসিম ও আর্জিনা।

এক পর্যায়ে পুলিশ জোর করে বাসায় প্রবেশ করলে আর্জিনা তাঁর কোমরে হাত দিতে যান। সেটা দেখে বাড়িওয়ালা ও তাঁর স্ত্রী ওই নারীর দুই হাত শক্ত করে ধরে ফেলেন। পরে পুলিশ আর্জিনার কোমর থেকে বোমা উদ্ধার করে।

এ প্রসঙ্গে সীতাকুণ্ড সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রেজাউর রহমান সাংবাদিকদের বলেন, দেশে জঙ্গিবিরোধী অভিযানের অংশ হিসাবে বাড়িওয়ালাদের সচেতন করা হচ্ছিল। বাসা ভাড়া দেওয়ার আগে ভাড়াটেদের সম্পর্কে তথ্য জানার আহ্বান জানানো হচ্ছিল। আজ বেলা আড়াইটার দিকে এই বাড়ির মালিক সুভাষ দাস ভাড়াটেকে জঙ্গি সন্দেহে পুলিশকে খবর দেওয়া মাত্র পুলিশ এসে বাড়িটি ঘেরাও করে ফেলে। জঙ্গি দম্পতির বাসা থেকে প্রচুর পরিমাণে বোমা তৈরির সরঞ্জাম, গ্রেনেড ও অস্ত্র উদ্ধার করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এদিকে একই দিনে পৌর সদরের প্রেমতলায় আরেকটি জঙ্গি আস্তানার সন্ধান পাওয়া গেছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। পুলিশের পক্ষে থেকে জানানো হয়েছে, বাড়িটি ঘেরাও করে রাখা হয়েছে। সেখানে জঙ্গিদের সঙ্গে পুলিশের গোলাগুলি চলছে।


মন্তব্য