kalerkantho


মানসম্মত শিক্ষার জন্য প্রয়োজন শিক্ষকদের সচেতনতা

মো. জহিরুল ইসলাম   

১৪ মার্চ, ২০১৭ ২৩:২২



মানসম্মত শিক্ষার জন্য প্রয়োজন শিক্ষকদের সচেতনতা

আজ মঙ্গলবার সরকারি তিতুমীর কলেজ শিক্ষক পরিষদের আয়োজনে, শিক্ষক পরিষদ মিলনায়তনে 'মানসম্মত শিক্ষা অর্জনের ক্ষেত্রে বিরাজমান সমস্যাসমূহ চিহ্নিতকরণ ও সমাধানে করণীয় নির্ধারণ' শীর্ষক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।

সেমিনারে বক্তারা বলেন, শিক্ষার্থীদের নেই থাকার পর্যাপ্ত যায়গা, শ্রেণি কক্ষের অপ্রতুলতা, শিক্ষার্থী অনুপাতে শিক্ষক কম, পর্যাপ্ত লাইব্রেরি সুবিধার অভাব, অপর্যাপ্ত গবেষণা কর্ম, শিক্ষক- শিক্ষার্থী সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্কের অনুপস্থিতি, গতানুগতিক শিক্ষা কারিকুলাম ও প্রশ্ন প্রণয়ন, যুগোপযোগী সিলেবাসের অভাব এবং ক্রটিপূর্ণ মূল্যায়ন ও পরীক্ষা পদ্ধতি, নির্দিষ্টি সময়ের মধ্যে সিলেবাস শেষ না হওয়া, স্বল্প সংখ্যক প্রশ্নের পুনরাবৃত্তিসহ নানাবিধ সমস্যার মাঝেও শিক্ষাকার্যক্রম চালিয়ে যাওয়া সম্ভব হতে পারে শিক্ষকদের সচেতনতার মাধ্যমে।  

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. আ আ স ম আরেফিন সিদ্দিকী।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাবি উপাচার্য বলেন, শত বছরেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় যায়গা সমস্যার সমাধান করতে পারেনি, শ্রেণিকক্ষ, গ্রন্থাগার থেকে শুরু করে শিক্ষক সমস্যাতো রয়েছেই, মূলত এটি আমাদের জাতীয় সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে।  

শ্রেণিকক্ষ সমস্যা একটি বড় ধরণের সমস্যা। এতো সমস্যা সমাধান করা যায় কিনা সেটা ভাবার বিষয় তবে এই সমস্যাগুলো নিয়ে শিক্ষা কার্যক্রম এগিয়ে নিতে হবে। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে ঢাকা অবস্থিত ৭টি কলেজকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আওতায় নিয়ে আসা হয়েছে। আমাদের সবাইকে একসাথে কাজ করতে হবে।  

মানসম্মত শিক্ষার জন্য গ্রন্থাগার, শ্রেণিকক্ষ, পর্যাপ্ত যায়গা যেমন প্রয়োজন তেমনি প্রয়োজন সকল শিক্ষকের সদিচ্ছা। এখনো ঢাকা বিশ্বদ্যিালয়ের এমনও বিভাগ রয়েছে যারা ১টি মাত্র কক্ষ দিয়ে তাদের কার্যক্রম চালাচ্ছে। মনে রাখতে হবে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয় থেকে আপনারা ঢাবির অধিনে এসেছেন তাই এখন শিক্ষার গুণগতমান পরিবর্তন করতে হবে।

 

ভর্তি পরীক্ষা, একাডেমিক ক্যালেন্ডার ঠিক রেখে আপনাদের সহযোগীতায় সামনে এগিয়ে নিতে হবে শিক্ষা কার্যক্রম। মূল্যবোধ, দেশপ্রেম, মুক্তিযুদ্ধের চেতনা ধারণ করতে হবে আমাদের এবং এগিয়ে নিতে হবে দেশকে। মনে রাখতে হবে শিক্ষা জাতীর মেরুদণ্ড আর শিক্ষকরা শিক্ষার মেরুদণ্ড। শুধু বিষয় ভিত্তিক লেকচার দিলে শিক্ষকদের পরিপূর্ণ দায়িত্বপালন হয়না।

সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সরকারি তিতুমীর কলেজের উপাধ্যক্ষ অধ্যাপক মুহাম্মদ এনামুল হক খান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন, রাষ্ট্র বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যক্ষ সালমা বেগম।


মন্তব্য