kalerkantho


ওজনে অনিয়মসহ বিভিন্ন অপরাধে বাড়ছে জরিমানা

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ১৪:১৯



ওজনে অনিয়মসহ বিভিন্ন অপরাধে বাড়ছে জরিমানা

স্ট্যান্ডার্ডস ওজন ও পরিমাপ আইন ২০১৭ এর খসড়ার নীতিগত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা। সোমবার সচিবালয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠকে এ অনুমোদন দেওয়া হয়। বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদসচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। তিনি বলেন, প্রস্তাবিত আইন অনুযায়ী মানদণ্ডহীন বাটখারার জন্য আগে ছয় মাস জেল বা অনূর্ধ্ব তিন হাজার টাকা জরিমানার বিধান ছিল। এখন সাজার মেয়াদ ঠিক রাখা হলেও জরিমানার পরিমাণ ২০ হাজার টাকা করা হয়েছে। এভাবে আরো কয়েকটি ধারায় জরিমানার পরিমাণ বাড়ানো হয়েছে।

তিনি জানান, মানদণ্ডহীন বাটখারা বা পরিমাপক ব্যবহারের শাস্তি তিন হাজার টাকা জরিমানা থেকে বাড়িয়ে ২০ হাজার টাকা পর্যন্ত অর্থদণ্ডের প্রস্তাব করা হয়েছে। তবে পূর্বের অনুর্ধ্ব ছয় মাসের কারাদণ্ড বহাল রাখা হয়। সরকারের অনুমতিক্রমে সম্পূর্ণ রপ্তারির উদ্দেশ্যে তৈরি বা উৎপাদিত কোনো বাটখারা বা পরিমাপণ ব্যতীত কোনো পরিমাপক তৈরি করলে শাস্তি ছিল অনুর্ধ্ব এক বছরের কারাদণ্ড অথবা এক লাখ টাকা জরিমানা। আগে জরিমানা ছিল ১০ হাজার টাকা। সরকারের অনুমতিক্রমে সম্পূর্ণ রপ্তারির উদ্দেশ্যে তৈরি বা উৎপাদিত কোনো ওজন বা পরিমাপণ ব্যতীত অন্য কোনো ওজন বা পরিমাপণ ব্যবহার করে তাহলে উৎপাদনকারীর শাস্তি অনুর্ধ্ব এক বছরের জেল অথবা ৫০ হাজার টাকা জরিমানা।

আগে জরিমানার পরিমাণ ছিল পাঁচ হাজার টাকা।
 
যদি কোনো ব্যক্তি সত্যতা প্রতিপাদনের জন্য পরিলক্ষিত ত্রুটি সংশোধন ব্যতিত অন্য কোনো উপায়ে রেফারেন্স স্ট্যান্ডার্ড, সেকেন্ডারি স্ট্যান্ডার্ড বা প্রচলতি মানদণ্ড পরিবর্তন বা পরিমিত করেন তাহলে সেই ব্যক্তি অনূর্ধ্ব ৫০ হাজার টাকা অর্থদণ্ডে দণ্ডিত হবেন। আর জরিমানা ছিল পাঁচ হাজার টাকা এবং দুই বছরের জেল। মন্ত্রিপরিষদসচিব জানান, দ্য স্ট্যান্ডার্ড অব ওয়েট অ্যান্ড মেজার্স অর্ডিনান্স ১৯৮২ সুপ্রিম কোর্টের সংশোধন-পরিমার্জন করে বাংলায় নিয়ে আসা হয়েছে। বিভিন্ন আন্তর্জাতিক সংস্থাগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য করে আইনের খসড়াটি করা হয়েছে বলে জানান সচিব।

 


মন্তব্য