kalerkantho


দুর্ধর্ষ জঙ্গিদের মামলা নিষ্পত্তিতে ধীরগতি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৩ মার্চ, ২০১৭ ০২:৩৫



দুর্ধর্ষ জঙ্গিদের মামলা নিষ্পত্তিতে ধীরগতি

বারবার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। তার পরও থমকে আছে দেশের বিভিন্ন কারাগারে বন্দি দুর্ধর্ষ জঙ্গি ও চাঞ্চল্যকর ঘটনার আসামিদের মামলাগুলো। দু'বছর ধরে এসব মামলা দ্রুত নিষ্পন্ন করতে সরকার একাধিক উদ্যোগ নিয়েছে। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একাধিক বৈঠকে পর্যালোচনা করা হয়েছে, কী কারণে বিচার কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে কিংবা ঝুলে যাচ্ছে। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সংশ্লিষ্ট শাখাকে উদ্যোগ নেওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন। মামলার সার্বিক তথ্য-উপাত্ত সংগ্রহের জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে পুলিশ অধিদপ্তরকে।  

দ্রুত বিচারের স্বার্থে বিভিন্ন কারাগারে ছড়িয়ে থাকা ৮৩ দুর্ধর্ষ আসামিকে নির্ধারিত কারাগারে স্থানান্তর করেছে কারা কর্তৃপক্ষ। মামলার বিবরণ ও তথ্য-উপাত্ত দিয়ে কী করে তা দ্রুত নিষ্পন্ন করা যায়, সে ব্যাপারে আইনি মতামতসহ যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার অনুরোধ জানিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে আইন মন্ত্রণালয়ে। এসব নিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও আইন মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা পর্যায়ে যোগাযোগও অব্যাহত রয়েছে। এর পরও কবে নাগাদ এসব মামলার দ্রুত নিষ্পত্তি হবে, সংশ্লিষ্টরা তা বলতে পারছেন না।

এ প্রসঙ্গে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, 'জঙ্গি ও দুর্ধর্ষ আসামিদের আদালতে হাজিরার দিন আনা-নেওয়ায় বিশেষ ঝুঁকি পোহাতে হয়।

এজন্য দেশের বিভিন্ন আদালতে চলমান দুর্ধর্ষ আসামিদের মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির উদ্যোগ নেওয়া হয়। জঙ্গি ও দুর্ধর্ষ আসামিদের বিরুদ্ধে থাকা সব মামলার তথ্য-উপাত্ত আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। কীভাবে এসব মামলা দ্রুত নিষ্পত্তি করা যায়, সে ব্যাপারে আইনি মতামত দিতে বলা হয়েছে। আইন মন্ত্রণালয় এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের নির্দেশনা দেবে। ' সমন্বিত উদ্যোগ নেওয়ায় বিচার দ্রুত নিষ্পত্তি হবে বলে আশা করছেন তিনি।

এ বিষয়ে আইন, বিচার ও সংসদবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের আইন ও বিচার বিভাগের সচিব আবু সালেহ শেখ মো. জহিরুল হক বলেন, 'স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পাঠানো দুর্ধর্ষ জঙ্গি আসামিদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন আদালতে চলা মামলার হালনাগাদ তথ্য পাওয়া গেছে। সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের বিচার দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য মামলার চার্জশিট ও সাক্ষী যথাসময়ে উপস্থিত করাসহ প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। আইন মন্ত্রণালয় ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ ক্ষেত্রে সমন্বিতভাবে কাজ করছে। '

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সূত্র জানায়, একাধিক বৈঠকে দুর্ধর্ষ আসামির বিরুদ্ধে থাকা একাধিক মামলা দ্রুত নিষ্পত্তির জন্য একসঙ্গে কিংবা প্রয়োজনে বিশেষ ট্রাইব্যুনালে বিচারের সুপারিশ করা হয়। এ পরিপ্রেক্ষিতে দুর্ধর্ষ আসামিদের নামে বিভিন্ন আদালতে চলমান আলোচিত জঙ্গি হামলা বা কার্যক্রম সংশ্লিষ্ট মামলা ও আসামিদের হালনাগাদ তালিকা প্রস্তুতের জন্য সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের নির্দেশ দেওয়া হয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে এ-সংক্রান্ত নির্দেশনা পুলিশ অধিদপ্তরে পাঠানো হয়। জটিল এসব মামলা এখনও তদন্তাধীন, বিচারাধীন ও বিচার প্রস্তুতির অপেক্ষায় রয়েছে।

বিভিন্ন কারাগারে বন্দি এ ধরনের অন্তত ৮৩ দুর্ধর্ষ আসামির বিরুদ্ধে বিভিন্ন থানায় একাধিক মামলা রয়েছে। এক জেলার কারাগারে বন্দি থাকলেও অন্য জেলার আদালতে নিয়মিত হাজিরার জন্য তাদের আনা-নেওয়া করতে হয় কারা কর্তৃপক্ষকে। নিরাপত্তা ঝুঁকির পাশাপাশি দীর্ঘ সময়ও ব্যয় হয় এতে। এ জন্য এসব মামলার দীর্ঘসূত্রতা দূর করে দ্রুত বিচার নিষ্পত্তির উদ্যোগ নেয় সরকার। কিন্তু গত দুই বছর আগে নেওয়া এ উদ্যোগ এখনও কার্যকর হয়নি।


মন্তব্য