kalerkantho


প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১০ মার্চ, ২০১৭ ১৮:০৪



প্রশ্ন ফাঁস নিয়ে যা বললেন শিক্ষামন্ত্রী

ফাইল ফটো

প্রশ্নপত্র ফাঁসের জন্য কিছু শিক্ষকের অসততাকে দায়ী করেছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। তিনি বলেছেন, পরীক্ষার সকালে শিক্ষকদের হাতে প্রশ্নপত্র পৌঁছে দেওয়ার পর ফেইসবুকে তা ফাঁস হচ্ছে।
শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) আয়োজনে এক মানববন্ধনে এ কথা বলেন শিক্ষামন্ত্রী।
চলতি বছর এসএসসিতে বিভিন্ন পরীক্ষার আগের রাতে প্রশ্নপত্র পাওয়া গেছে হোয়াটসঅ্যাপসহ বিভিন্ন মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে, যা পরদিন পরীক্ষায় হুবহু মিলে গেছে। এ নিয়ে সংবাদ মাধ্যমে প্রতিবেদন প্রকাশিত হলেও তাতে কাজ হয়নি। প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার পরও কোনো পরীক্ষা বাতিল বা স্থগিত করার নির্দেশ দেননি মন্ত্রী।
দুদকের মানববন্ধনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, এবার প্রশ্ন ফাঁসের কিছু ঘটনা প্রকাশিত হয়েছে। যখন বিভিন্ন জেলায় প্রশ্নপত্র পাঠানো হল তখন তা ফাঁস হয়নি, শেষরাত বা ভোররাত থেকে প্রশ্ন ফেইসবুক থেকে আসছে। সত্যি কিনা মিথ্যা তা পরের দিনের প্রশ্নের সঙ্গে মেলালেই বুঝতে পারবেন।
মন্ত্রী বলেন, প্রশ্নপত্র শিক্ষকের হাতে পৌঁছে দিয়ে তারা যখন ‘চিন্তামুক্ত’ হচ্ছেন, তখনই পরীক্ষা শুরুর ঘণ্টাখানেক আগে প্রশ্নপত্র ফেইসবুকে আসতে দেখা যাচ্ছে।
তিনি বলেন, ‘আমরা দুই ঘণ্টা আগে প্রশ্ন দিতে বাধ্য, কারণ গ্রাম অঞ্চলে এই প্রশ্ন নিয়ে যেতে হবে।

উপজেলা পর্যায়ে প্রশ্ন রাখতে হয়, তার নিচে নয়। তাহলে কে প্রশ্ন বের করে দিচ্ছে?’
এছাড়া বিজি প্রেসও এজন্য দায়ী বলে মন্তব্য করেন তিনি। তবে বলিক পরীক্ষার প্রশ্ন বিজি প্রেস ছাড়াও ছাপানো সম্ভব বলে জানান শিক্ষামন্ত্রী। তিনি বলেন, ‘আমরা দেখেছি, বিজি প্রেসেই কিছু দুর্নীতিবাজ লোক গেঁড়ে বসে ছিল, এরপর দুর্নীতিবাজদের চিহ্নিত করে ব্যবস্থা নেওয়া হয়, তাদের কারও চাকরি চলে গেছে, আবার কেউ জেলে আছে। ’


মন্তব্য