kalerkantho


ফেসবুকে ‘ড-তে ড্রাইভার, ড-তে ডাক্তার’ লেখায় চাকরি গেল রেনেটা কর্মকর্তার!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ মার্চ, ২০১৭ ২১:২৮



ফেসবুকে ‘ড-তে ড্রাইভার, ড-তে ডাক্তার’ লেখায় চাকরি গেল রেনেটা কর্মকর্তার!

ফেসবুকে ‘ড-তে ড্রাইভার, ড-তে ডাক্তার’ লেখায় ওষুধ প্রস্তুতকারক কম্পানি রেনেটা লিমিটেডের এক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়েছে। ৫ মার্চ তুহিন রেজা নামের প্রতিষ্ঠানের ওই কর্মকর্তার বিরুদ্ধে এ ব্যবস্থা নেওয়া হয় বলে প্রকাশ্যে ফেসবুকে জানিয়েছে রেনেটা লিমিটেড।

'চিকিৎসকদের সাথে রেনেটা সবসময় আছে' উল্লেখ করে রেনেটার ওই কর্মীর মন্তব্যের জন্য ক্ষমাও চাওয়া হয়েছে। অবশ্য আশিক নামের একজনের হুমকির প্রতিবাদে রেনেটার নতি স্বীকারের ঘটনা লক্ষ্য করা গেছে।   মাফ চেয়ে তারা সাসপেনশন লেটার তুলে ধরে নিশ্চিত করেন যে ঐ কর্মীকে তারা বহিস্কার করেছেন। ওই কর্মীর ফেসবুক প্রোফাইলের নাম ‘ঘাসফড়িং তুহিন’।   জানা গেছে, বরখাস্তকৃত মো. তুহিন রেজা প্রতিষ্ঠানটির প্ল্যান্ট সেকশনে কর্মরত ছিলেন।
চিকিৎসকদের ক্রমাগত চাপের কাছে নতিস্বীকার করে গত রবিবার সন্ধ্যায়ই ওই কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। পরে ওই দিন রাত সাড়ে ৯টার দিকে ওই কর্মকর্তার বরখাস্তের চিঠিও ফেসবুকে পোস্ট করা হয়। মার্চের ৫ তারিখে ইস্যু করা ওই ‘বরখাস্তের চিঠিতে’ চিঠিতে বলা হয়েছে, সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং অসম্মানজনক মন্তব্যের মাধ্যমে তুহিন রেজা রেনেটা কর্মসংস্থান নীতি ভঙ্গ করেছেন। এটি গুরুতর অসদাচরণ এবং এর জন্য কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা প্রাপ্য।

এই জন্য ৫ তারিখ থেকে পরবর্তী বিজ্ঞপ্তি না দেওয়া পর্যন্ত তুহিন রেজার চাকরি স্থগিত বলে জানিয়ে দেওয়া হয়।


বহিস্কার করে রেনেটার ফেসবুক পেইজে  লেখা হয়েছে,  সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে আমাদের কারখানার কর্মী ঘাসফড়িং তুহিনের দায়িত্বজ্ঞানহীন ও অসম্মানমূলক মন্তব্যের জন্য আমরা আন্তরিকভাবে ক্ষমা চাচ্ছি। তাঁর ওই মন্তব্যটি ছিল ব্যক্তিগত এবং তাঁর মন্তব্য ও আচরণের নিন্দা জানাচ্ছে রেনেটা। তাৎক্ষণিক ব্যবস্থা হিসেবে আমরা তাঁকে সাময়িক বরখাস্ত করেছি। আরো ব্যবস্থা গ্রহণের বিষয়টি ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষের বিবেচনায় রয়েছে। পৃষ্ঠপোষকদের প্রতি এ ধরনের আচরণ আমরা কখনওই সহ্য করবো না।

রেনেটা লিমিটেডের প্ল্যান্ট সেকশনের জনসংযোগ বিভাগের কর্মকর্তা শিহাবুল কবির জানান, এটা চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নয়।   উনি কেন এমন মন্তব্য করেছেন তা যাচাই করা হচ্ছে। বহিষ্কারের বিষয়ে তিনি জানান এটা সাময়িক বহিষ্কার। চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত সিদ্ধান্ত কী নেওয়া হবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।

 


মন্তব্য