kalerkantho


অগ্নিঝরা মার্চ : কেমন ছিল ১৯৭১ সালের আজকের দিন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৭ মার্চ, ২০১৭ ১১:০২



অগ্নিঝরা মার্চ : কেমন ছিল ১৯৭১ সালের আজকের দিন

সকাল থেকেই রাজধানী ঢাকা পরিণত হয়েছিল মিছিলের নগরীতে। মানুষ সমাবেত হতে শুরু করে রেসকোর্স ময়দানে।

মঞ্চে চলছিল গণসংগীত। দেশজুড়ে মানুষ অপেক্ষায়। কি বলবেন বঙ্গবন্ধু? আন্দোলনের ব্যাপারে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত আসবে তো? এই আগ্রহের শুরুটা ৩ মার্চ ১৯৭১। সে দিন পল্টনে এক ছাত্র সমাবেশে বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চ ভাষণ দেওয়ার কথা ঘোষণা করেছিলেন।

বিবিসি বাংলার সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে সে সময়কার তুখোড় ছাত্রনেতা তোফায়েল আহমেদ বলেন, সামরিক শাসন তুলে নেওয়া এবং সৈন্যদের ব্যারাকে ফেরত নেওয়াসহ পশ্চিম পাকিস্তানের প্রতি চারটি শর্তর ব্যাপারেই শুধু বঙ্গবন্ধু তার সহকর্মীদের সাথে আলোচনা করেছিলেন। ভাষণ দিতে বাসা থেকে বেরোনোর সময় শেখ মুজিবকে তার স্ত্রী শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুজিব বলেছিলেন, তুমি যা বিশ্বাস করো, তাই বলবে। ৭ মার্চের সেই ভাষণ তিনি নিজের চিন্তা থেকেই দিয়েছিলেন। ভাষণটি লিখিত ছিল না।

৭ মার্চ সকাল থেকেই ঢাকায় ধানমণ্ডির ৩২ নম্বর বাড়িতে ছিল আওয়ামী লীগের শীর্ষ নেতা এবং ছাত্রনেতাদের ভিড়।

দুপুর ২টার দিকে আব্দুর রাজ্জাক এবং তোফায়েল আহমেদসহ তরুণ নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে শেখ মুজিব তার বাড়ি থেকে রওনা হয়েছিলেন জনসভার উদ্দেশে।

রেসকোর্স ময়দানে লাখো মানুষের অপেক্ষার পালা শেষ করে সাদা পাজামা-পাঞ্জাবি এবং হাতাকাটা কালো কোট পড়ে শেখ মুজিব উপস্থিত হয়েছিলেন। সেই মঞ্চে একাই ভাষণ দিয়েছিলেন শেখ মুজিব। লাঠি, ফেস্টুন হাতে লাখো মানুষ উত্তপ্ত স্লোগানে মুখরিত থাকলেও শেখ মুজিবের ভাষণের সময় সেখানে ছিল পিনপতন নীরবতা। ভাষণ শেষে আবার স্বাধীনতার পক্ষে স্লোগানমুখর হয়ে উঠেছিল ঢাকার রাজপথ।

 


মন্তব্য