kalerkantho


ফিটনেসবিহীন গণপরিবহন বন্ধে অভিযান, ১২ বাসচালকের কারাদণ্ড

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৬ মার্চ, ২০১৭ ২১:৩৮



ফিটনেসবিহীন গণপরিবহন বন্ধে অভিযান, ১২ বাসচালকের কারাদণ্ড

মহানগরীতে ফিটনেসবিহীন গণপরিবহন বন্ধে পুরান ঢাকার বাহাদুর শাহ পার্ক, নিউমার্কেট ও নটরডেম কলেজের সামনে অভিযান চালিয়ে ১২ জনকে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। এ সময় ফিটনেসবিহীন ৮টি বাস জব্দ করা হয়। এছাড়া বিভিন্ন অপরাধে ৭০টি মামলা ও ১ লাখ ৪০ হাজার ৬০০ টাকা জরিমানা করা হয়। আজ সোমবার সকাল ১০টা থেকে বিকেল চারটা পর্যন্ত এ অভিযান চালানো হয়।

নগরের যানজট ও যাত্রীদের দুর্ভোগ কমাতে এ উদ্যোগ নিয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন (ডিএসসিসি)। এতে সহযোগিতা করছে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন সংস্থা (বিআরটিএ), ঢাকা জেলা প্রশাসন ও ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ (ডিএমপি)।

ডিএসসিসি জানিয়েছে, ড্রাইভিং লাইসেন্স না থাকায় ওই ১২ জন বাসচালককে বিভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দেওয়া হয়। এছাড়া অতিরিক্ত যাত্রী নেওয়া, বাসের আসন নোঙরা-ভাঙাচোরা থাকা এবং ভাড়ার তালিকা, রুট পারমিট, রেজিস্ট্রেশন, ট্যাক্স টোকেন না থাকাসহ বিভিন্ন অপরাধে ওই ৭০টি মামলা ও জরিমানা করা হয়। আগামী ১৩ কর্মদিবস পর্যন্ত ভ্রাম্যমাণ আদালতের এ অভিযান চলবে বলে জানানো হয়।

এ ব্যাপারে জানতে চাইলে ডিএসসিসির মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন বলেন, লাইসেন্সবিহীন গণপরিবহন চালক, পুরানো ও মেয়াদোত্তীর্ণ যানবাহনের জন্য প্রায়ই দুর্ঘটনা ঘটছে। এতে নাগরিকদের জীবন হুমকির মুখে পড়েছে।

এছাড়া যত্রতত্র যানবাহন পার্ক করায় শহরে তীব্র যানজটের সৃষ্টি হয়। গণপরিবহন ব্যবস্থায় সুষ্ঠু শৃঙ্খলা না আসা পর্যন্ত এ অভিযান চলবে।

তিনি আরো বলেন, ড্রাইভিং লাইসেন্স ও বিআরটিএর আইন অনুযায়ী ন্যূনতম শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকলে গণপরিবহন চালকদের আইনের আওতায় আনা হবে। পরিবহন শ্রমিকদের পক্ষ হয়ে কেউ বাধা দিলে তাঁকে ছাড় দেওয়া হবে না। যত বড় প্রভাবশালী নেতাই হোক, তাঁর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

উল্লেখ্য, গত ১৫ ফেব্রুয়ারি নগরভবনে বিআরটিএ, ঢাকা মহানগর পুলিশ এবং জেলা প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সঙ্গে এক বৈঠকে মেয়র সাঈদ খোকন এ অভিযান চালানোর কথা জানান। এরপরই গতকাল রবিবার সকাল থেকে ২০ বছরের বেশি পুরানো মেয়াদোত্তীর্ণ যানবাহনের বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের ভ্রাম‌্যমাণ আদালত।


মন্তব্য