kalerkantho


সংসদে প্রশ্নোত্তরে এলজিআরডিমন্ত্রী

'শুষ্ক মৌসুমে পানি সংকট নিরসনে ৩৭৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ'

নিজস্ব প্রতিবেদক   

৬ মার্চ, ২০১৭ ২০:১৫



'শুষ্ক মৌসুমে পানি সংকট নিরসনে ৩৭৫ কোটি টাকার প্রকল্প গ্রহণ'

শুষ্ক মৌসুমে পানি সংকট নিরসনে সরকার ৩৭৫ কোটি টাকা ব্যয়ে একটি প্রকল্প গ্রহণ করেছে বলে জানিয়েছেন স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায়মন্ত্রী খন্দকার মোশাররফ হোসেন। আজ সোমবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে তিনি এ তথ্য জানান।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে শুরু হওয়া সংসদ অধিবেশনে এ সংক্রান্ত লিখিত প্রশ্নটি উত্থাপন করেন সরকারি দলের সংসদ সদস্য সাধন চন্দ্র মজুমদার। জবাবে মন্ত্রী আরো জানান, সুপেয় পানি ও কৃষি কাজে ভূ-গর্ভস্থ পানির উপর অধিকহারে নির্ভরশীলতার কারণে ইতোমধ্যে ভূ-গর্ভস্থ পানির স্তর ৩ মিটার হতে ১০ মিটার পর্যন্ত নীচে নেমে গিয়েছে। ফলে শুস্ক মৌসুমে নলকূপে পর্যাপ্ত পরিমাণ পানি পাওয়া যায় না। এ অবস্থা থেকে উত্তরণের জন্য ওই প্রকল্প নেওয়া হয়েছে।
 
সংরক্ষিত মহিলা আসনের সদস্য নূরুজাহান বেগমের প্রশ্নের জবাবে এলজিআরডিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের পৌরসভাগুলোর রাস্তাঘাট উন্নয়ন, পানি নিস্কাশন ও ড্রেন নির্মাণের জন্য স্থানীয় সরকার বিভাগ থেকে বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচির আওতায় চার কিস্তিতে উন্নয়ন সহায়তা থোক বরাদ্দের অর্থ প্রদান করা হয়ে থাকে।

আওয়ামী লীগের এম আবদুল লতিফের প্রশ্নের জবাবে তিনি জানান, ২০১৩ সালে বাংলাদেশ প্রকৌশল বিদ্যালয় টিম কর্তৃক ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মালিকানাধীন রাজধানীর ১৪টি মার্কেটকে ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণের জন্য প্রতিবেদন দাখিল করেছে। তবে এ ধরনের ঝুঁকিপূর্ণ মার্কেট অপসারণের বিরুদ্ধে প্রায় প্রতিটি ক্ষেত্রে মামলা থাকায় অপসারণ কার্যক্রম বিলম্বিত হচ্ছে।

 


মন্তব্য