kalerkantho


বাংলাদেশে বিদেশি কোনো জঙ্গি সংগঠনের তৎপরতা নেই : তথ্যমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৪ মার্চ, ২০১৭ ২২:৫২



বাংলাদেশে বিদেশি কোনো জঙ্গি সংগঠনের তৎপরতা নেই : তথ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশে বিদেশি কোনো জঙ্গি সংগঠনের তৎপরতা নেই, বাংলাদেশ সবসময় এমন দাবি করে এলেও যুক্তরাষ্ট্র মনে করে দেশটিতে তথাকথিত ইসলামিক স্টেট এবং ভারতীয় উপমহাদেশের আল-কায়দার সঙ্গে যোগসূত্র আছে এমন চরমপন্থিরা তাদের তৎপরতা বাড়িয়েছে।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের প্রকাশ করা মানবাধিকার চর্চা বিষয়ক কান্ট্রি রিপোর্টের বাংলাদেশ অংশে এ বিষয়টি উঠে এসেছে।

সেখানে বাংলাদেশে গত বছর বিচার-বহির্ভূত হত্যা, গুম, গণ-গ্রেপ্তার ইত্যাদি বৃদ্ধির বিষয়টি যেখানে উল্লেখ রয়েছে, তেমনি বলা হচ্ছে সেখানে অনলাইনে মত প্রকাশের এবং সংবাদপত্রের স্বাধীনতার উপর সরকারের হস্তক্ষেপ রয়েছে।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী রেক্স টিলারসনের নেতৃত্বাধীন এই দপ্তর তাদের মানবাধিকার বিষয়ক রিপোর্টটি ওয়েবসাইটে প্রকাশ করে বাংলাদেশ সময় শুক্রবার গভীর রাতে। সেখানে বাংলাদেশ অংশে বলা হয়, কথিত ইসলামিক স্টেট এবং ভারতীয় উপমহাদেশের আল কায়দার সঙ্গে যুক্ত বলে দাবি করে এমন চরমপন্থি সংগঠনগুলো বাংলাদেশে তাদের তৎপরতা বাড়িয়েছে, তারা উচ্চপর্যায়ের হামলা চালাচ্ছে যেখানে ধর্মীয় সংখ্যালঘু, শিক্ষক, বিদেশী নাগরিক, মানবাধিকার কর্মী, সমকামী ও হিজড়া সম্প্রদায়ের সদস্যরা নিহত হচ্ছেন।

জবাবে বাংলাদেশ সরকারও তার জঙ্গি-বিরোধী তৎপরতা বাড়িয়েছে, যার ফলে বেড়েছে বিচার-বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, গণ-গ্রেপ্তার, চাঁদার দাবিতে গ্রেপ্তার, গুম, নির্যাতনসহ নানা রকম মানবাধিকার-বিরোধী তৎপরতা।

মার্কিন পররাষ্ট্র দপ্তরের এই রিপোর্টটি পড়েছেন মানবাধিকার সংস্থা আইন ও শালিস কেন্দ্রের নুর খান লিটন। তিনি বলেন, আমরা বিগত দিনে যে কথা বলেছি সেই কথারই পুনরাবৃত্তি লক্ষ করলাম। বাংলাদেশে বিচার বহির্ভূত হত্যাকাণ্ড, পুলিশি হেফাজতে বন্দীদের মৃত্যু, তারপর এনফোর্সড ডিজঅ্যাপিয়ারেন্স যেটাকে আমরা গুম বলি, এই ঘটনাগুলো প্রতিনিয়তই আশঙ্কাজনকভাবে বৃদ্ধি পাচ্ছে। আমাদের এখানে যে পরিস্থিতি বিরাজ করছে সেটার অংশ বিশেষ স্টেট ডিপার্টমেন্টের প্রতিবেদনে আমরা লক্ষ্য করছি। বাস্তবতা আরো অনেক খারাপ।

অবশ্য বাংলাদেশের সরকার কখনই দেশটিতে বিদেশি জঙ্গি গোষ্ঠীর তৎপরতা থাকার কথা স্বীকার করে না।

স্টেট ডিপার্টমেন্টের এই প্রতিবেদনের উপর মন্তব্য চাইতে চাইলে বাংলাদেশের তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনু বলেছেন, বাংলাদেশ ইউরোপ-আমেরিকার চাইতেও দক্ষতার সাথে জঙ্গি তৎপরতা মোকাবেলা করেছে। ইউরোপ আমেরিকায় যত বিপজ্জনক আক্রমণ হয়েছে অত বিপজ্জনক আক্রমণ বাংলাদেশে করতে পারেনি। আমরা ওদের চাইতে দক্ষতার সাথে জঙ্গি সন্ত্রাসীদের কাবু করেছি। এ ব্যাপারে আমি মনে করি আমাদের সরকার চমৎকার ভূমিকা রাখছে এবং শান্তি ফেরত এনেছে।


মন্তব্য