kalerkantho


ফুটপাত থেকে নিরাপত্তা স্থাপনা সরাতে ৮ দূতাবাসে চিঠি

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ মার্চ, ২০১৭ ২০:১৯



ফুটপাত থেকে নিরাপত্তা স্থাপনা সরাতে ৮ দূতাবাসে চিঠি

পথচারীদের চলাচলের জন্য ফুটপাতের ওপর গড়ে তোলা নিরাপত্তা স্থাপনা সরিয়ে নিতে আটটি দূতাবাসকে চিঠি দিয়েছে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশন। যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য, ফ্রান্স, ইতালি, জার্মানি, কানাডা, অস্ট্রেলিয়া ও তুরস্কের রাষ্ট্রদূতদের কাছে গতকাল মঙ্গলবার এ চিঠি পাঠানো হয়।

উত্তর সিটি করপোরেশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মেসবাহুল ইসলামের স্বাক্ষরিত চিঠিতে ফুটপাতের উপরের এসব স্থাপনা সরিয়ে দূতাবাসের নিজেদের জায়গায় নিতে অনুরোধ জানানো হয়েছে।

চিঠিতে এও উল্লেখ করা হয়, তা করা হলে ফুটপাতে জনসাধারণের চলাচল সহজ হবে।

এ ব্যাপারে আজ বুধবার মেসবাহুল ইসলাম বলেন, এসব এলাকায় ফুটপাতে পথচারীরা চলতে পারছে না। আমাদের লোকজনকে যেন চলতে দেয় এ ব্যাপারে অন্তত একটা আলোচনা শুরু করার জন্যই তাদের চিঠি পাঠানো হয়েছে। তিনি আরো বলেন, এ বিষয়ে মেয়র মহোদয়ের সঙ্গে বিভিন্ন মহল কথা বলেছেন। এছাড়া হাই কোর্টের একটা আদেশ আছে ফুটপাত ফ্রি করে দিতে হবে।

প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বলেন, তাদের (দূতাবাসের) নিরাপত্তাও কীভাবে জোরদার করা যায়, পাশাপাশি কীভাবে পথচারীদের চলাচলও নিশ্চিত করা যায় সে বিষয়ে আলোচনা করব। সব দিক বিবেচনা করে একটা সুন্দর সমাধানে আসতে চাই।

প্রসঙ্গত, গুলশান সোসাইটির বর্তমান মহাসচিব ব্যারিস্টার ওমর সাদাতের দায়ের করা একটি রিট আবেদনে ২০০১ সালের ১১ ফেব্রুয়ারি হাই কোর্ট ঢাকা সিটি কর্পোরেশনের মেয়রকে ঢাকার ফুটপাতের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করে তা জনসাধারণের চলাচলের জন্য উন্মুক্ত করার নির্দেশনা দেয়।

ওই নির্দেশনার কথা উল্লেখ করে গুলশান সোসাইটির সভাপতি এটিএম শামসুল হুদা গত বছর ১৫ ডিসেম্বর ফুটপাতের অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ করতে উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়রের কাছে আবেদন করেন। এর পরিপ্রেক্ষিতে আট দেশের দূতাবাসের সামনের ফুটপাত খালি করার অনুরোধ জানিয়ে গতকাল মঙ্গলবার এ চিঠি পাঠানো হয়।

 


মন্তব্য