kalerkantho


প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে সরকার কারিগরি শিক্ষায় গুরুত্ব দিয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১ মার্চ, ২০১৭ ১৮:২৬



প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে সরকার কারিগরি শিক্ষায় গুরুত্ব দিয়েছে : শিক্ষামন্ত্রী

শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেছেন, প্রযুক্তির দ্রুত সম্প্রসারণ বৈপ্লবিকভাবে বিশ্বায়নে অভূতপূর্ব পরিবর্তন এনেছে। তিনি আরো বলেন, এ কারণে বর্তমান সরকার দেশের উন্নয়নে প্রযুক্তির ব্যবহার বাড়াতে কারিগরি শিক্ষার প্রতি গুরুত্ব দিয়েছে।

আজ বুধবার ঢাকায় মিরপুর সেনানিবাসে মিলিটারি ইনস্টিটিউট অব সায়েন্স এ্যা- টেকনোলজির (এমআইএসটি) ১৫তম গ্রাজুয়েশন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন। একই সঙ্গে তিনি বর্তমান সরকারের ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার কার্যক্রমকে বেগবান করার জন্য দেশের সকল প্রযুক্তি ও কারিগরি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে আরো আন্তরিক হতে আহ্বান জানান।

নবীন গ্রাজুয়েটদের উদ্দেশে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ভিশন-২০২১ বাস্তবায়নের লক্ষ্যে বাংলাদেশের সামগ্রিক কারিগরি দক্ষতা বৃদ্ধির জন্য সকলকে নিরলসভাবে কাজ করে যেতে হবে। দেশপ্রেম, সততা ও আন্তরিকতা দিয়ে দেশের উন্নয়নের জন্য তিনি সবাইকে সর্বাত্মক চেষ্টা করার আহ্বান জানান।

তিনি আরো বলেন, তোমাদের প্রচেষ্টা এবং কর্মক্ষেত্রের সাফল্য ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য পাথেয় হয়ে থাকবে। সার্বক্ষণিক জ্ঞানচর্চার মাধ্যমে আত্মশুদ্ধির অভ্যাস গড়ে তুলতে হবে। একবিংশ শতাব্দীর চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্য তিনি ছাত্র-ছাত্রীদের দায়িত্বশীল নাগরিক হওয়ার বিষয়েও গুরুত্বারোপ করেন।

শিক্ষার গুনগত মান বজায় রাখায় এমআইএসটি কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়ে নুরুল ইসলাম নাহিদ এ প্রতিষ্ঠানকে একটি রোল মডেল হিসেবে উল্লেখ করেন। তিনি ছাত্রছাত্রীদেরকে দক্ষ, বিবেকবান ও দায়িত্ব-কর্তব্য সম্পর্কে সচেতন করে গড়ে তোলারও আহ্বান জানান।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যদের মধ্যে এমআইএসটি’র কমান্ড্যান্ট মেজর জেনারেল মো. আবুল খায়ের বক্তৃতা করেন। এতে সামরিক-বেসামরিক উর্ধ্বতন কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে ৩০৬ জন শিক্ষার্থীকে বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং ডিগ্রী প্রদান করা হয়। শিক্ষামন্ত্রী কৃতিত্বপূর্ণ ফলাফল অর্জনকারী শিক্ষার্থীদের মাঝে সনদ ও মেডেল বিতরণ করেন।


মন্তব্য