kalerkantho


কিভাবে ঘরে বসেই মিলবে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২৭ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৫:৪২



কিভাবে ঘরে বসেই মিলবে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট

ভিসার আবেদন করার জন্য পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট দরকার হলে এখন ঘরে বসেই অনলাইনে তা সংগ্রহ করা যাবে। এ ছাড়া বিদেশে ভিসা-পাসপোর্ট নবায়ন, গ্রিনকার্ড, ওয়ার্ক পারমিটের আবেদন জন্য পুলিশ ক্লিয়ারেন্সও পাওয়া যাবে।

পুলিশের নির্দিষ্ট একটি ওয়েবসাইটে গিয়ে এ সংক্রান্ত সব কাজ করা যাবে। ডিএমপি নিউজে এ-সংক্রান্ত বিস্তারিত তথ্য জানিয়েছেন ঢাকা মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি-মিডিয়া) সুমন কান্তি চৌধুরী।

জেনে রাখা দরকার
পুলিশ ক্লিয়ারেন্সের জন্য পাসপোর্টে থাকা স্থায়ী বা বর্তমান ঠিকানার যেকোনো একটি ঠিকানায় আবেদন করতে হবে। এটি হতে হবে মহানগর পুলিশ বা জেলা পুলিশের আওতাধীন এলাকা। যদি পাসপোর্টে ঠিকানা উল্লেখ না থাকে তবে ঠিকানার প্রমাণ হিসেবে জাতীয় পরিচয়পত্র বা স্থানীয় ওয়ার্ড কাউন্সিলের দেওয়া জন্ম সনদপত্রের ফটোকপি প্রথম শ্রেণির সরকারি গেজেটেড কর্মকর্তা দিয়ে সত্যায়িত করে স্ক্যান করতে হবে।

দেশের বাইরে অবস্থানকারীদের পক্ষে দেশে যে কেউ এই আবেদন করতে পারবেন। সেক্ষেত্রে আপনি যে দেশে অবস্থান করছেন ওই দেশের বাংলাদেশ দূতাবাস বা হাইকমিশনের সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তা কর্তৃক পাসপোর্টের তথ্য পাতার সত্যায়িত ফটোকপির স্ক্যানকপি প্রয়োজন। যদি কুরিয়ারে করে পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পেতে চান তবে তা আবেদন ফরমে উল্লেখ করতে হবে।

অনলাইনে আবেদন
১. অনলাইন পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেটের জন্য আবেদন করতে প্রথমে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে।

রেজিস্ট্রেশন করার জন্য ভিজিট করুন এই ওয়েবসাইটে (http://pcc.police.gov.bd/en/)।

২. রেজিস্ট্রেশন করার পর লগ-ইন করে অ্যাপ্লাই (Apply) মেনুতে ক্লিক করলে একটি আবেদন ফরম আসবে। ফরমটিতে যথাযথ তথ্য দিয়ে পূরণ করতে হবে।

৩. আবেদন ফরমের (Application form) আপলোড (Upload) অপশনে গিয়ে প্রয়োজনীয় তথ্যের স্ক্যানকপি আপলোড করতে হবে।

৪. এই পর্যায়ে আপনার প্রদত্ত সব তথ্য দেখানো হবে। কিছু পরিবর্তনের প্রয়োজন পড়লে তা ব্যাক (Back) বাটনে ক্লিক করে পরিবর্তন করা যাবে। তবে আবেদনটি চূড়ান্তভাবে জমা দেওয়ার পর তা আর কোনো পরিবর্তন করার সুযোগ থাকবে না।

৫. এরপর পুলিশ ভেরিফিকেশন ফি পরিশোধ করার জন্য পে অফলাইন (Pay Offline) বাটনে ক্লিক করতে হবে। চালানের মাধ্যমে ফি পরিশোধের উপায় এবং পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে নির্দেশনা (Instruction) দেখতে হবে। বাংলাদেশ ব্যাংক বা সোনালী ব্যাংকের যেকোনো শাখা থেকে (১-২২০১-০০০১-২৬৮১) কোডে করা ৫০০ টাকা মূল্যমানের ট্রেজারি চালান অথবা অনলাইনে ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে প্রযোজ্য ক্ষেত্রে নির্ধারিত সার্ভিস চার্জসহ ফি দিতে হবে।

৬. চালানের মূল কপিটি আপলোড করার আগে অবশ্যই এর ওপর অ্যাপ্লিকেশন রেফারেন্স নম্বরটি লিখে নিতে হবে। তা না হলে আপনার পেমেন্টটি গ্রহণযোগ্য হবে না এবং আবেদনটি বাতিল হয়ে যাবে।

আবেদন প্রক্রিয়া সম্পন্ন হলে ফরম অনলাইনে জমা দেওয়ার সময় কুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে ডেলিভারি নেবেন কি না, এমন একটি অপশন আসবে। সেখানে ক্লিক করলে এক সপ্তাহের মধ্যে সংশ্লিষ্ট ঠিকানায় পুলিশ ক্লিয়ারেন্স সার্টিফিকেট পৌঁছে যাবে। তবে এ ক্ষেত্রে কুরিয়ার সার্ভিসের জন্য বাড়তি টাকা সার্টিফিকেট পাওয়ার পর তাদের দিতে হবে। কুরিয়ার সার্ভিসে নিতে না চাইলে সংশ্লিষ্ট থানা বা পুলিশের ওয়ানস্টপ সার্ভিসে গেলে সার্টিফিকেট পাওয়া যাবে।

জেনে নিন আবেদনের আপডেট
আবেদনের আপডেট পেতে আপনার মোবাইল ফোনের মেসেজ অপশনে গিয়ে টাইপ করুন পিসিসিএস (PCCS)। এরপর আপনার আবেদনের রেফারেন্স নম্বর লিখে পাঠিয়ে দিন 6969 নম্বরে। ফিরতি খুদেবার্তায় (এসএমএস) পেয়ে যাবেন আপনার আবেদনের সর্বশেষ আপডেট।

সমস্যায় পড়লে সাহায্য নিন  
পুলিশ সদর দপ্তর হেল্প ডেস্ক : আপনার সমস্যার কথা ০১৭৫৫৬৬০১৭২ নম্বরে জানান (রোববার-বৃহস্পতিবার সকাল ৮টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত)। যেকোনো ইস্যুতে প্রথমবার কল করার পর টিকেট নম্বর জেনে নিন। একই ইস্যুতে পরবর্তী কলের ক্ষেত্রে টিকেট নম্বর উল্লেখ করুন।

ডিএমপি হেল্প ডেস্ক : ঢাকা মহানগর এলাকার আবেদনকারীরা সমস্যায় পড়লে যোগাযোগ করতে পারেন এসব নম্বরে, ০১১৯১-০০৬৬৪৪ এবং ০২-৭১২৪০০০। অথবা ডিএমপি ওয়ান স্টপ সার্ভিস সেন্টারে কথা বলুন ০১৭১৩৩৯৮৬৮০ নম্বরে।

 


মন্তব্য