kalerkantho


প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য দুরভিসন্ধিমূলক: রিজভী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৬:০০



প্রধানমন্ত্রীর বক্তব্য দুরভিসন্ধিমূলক: রিজভী

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন ইভিএম ফেরানোর যে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দিয়েছেন তার পেছনে দুরভিসন্ধি দেখছে বিএনপি। প্রধানমন্ত্রীর এ মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে রিজভী এসব কথা বলেন।

দলটির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলছেন, জনগণের দৃষ্টিকে সিইসির দিক থেকে অন্যত্র সরানোর জন্য ই-ভোটিং ব্যবস্থা প্রধানমন্ত্রীর আরেকটি ম্যাজিক।

ই-ভোটিং চালুর বিষয়ে জাতীয় সংসদে প্রধানমন্ত্রীর দেওয়া বক্তব্যের জবাবে বৃহস্পতিবার দুপুরে রাজধানীতে এক সংবাদ সম্মেলনে রিজভী বলেন, আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী যে ই-ভোটিং ব্যবস্থার কথা বলছেন, তা নিঃসন্দেহে দুরভিসন্ধিমূলক, জনগনের ভোটকে স্বীয় উদ্দেশ্য সাধনে জালিয়াতি করার প্রচেষ্টা মাত্র। আমরা মনে করি এটি প্রধানমন্ত্রীর আরেকটি ভেল্পিবাজিরই বর্হিপ্রকাশ।

রিজভী বলেন,প্রধানমন্ত্রীর পক্ষে নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য ই-ভোটিং চালু করার ঘোষণা জনগণকে আরেকটি তামাশার বায়োস্কোপ দেখানো ছাড়া অন্য কিছু নয়। কারণ আওয়ামী লীগ নিজেদের টিকিয়ে রাখতে চক্রান্ত, ষড়যন্ত্র ও কারসাজির ওপরই ভর করে। তিনি বলেন, বিএনপির পক্ষ থেকে আমি দৃঢ়কণ্ঠে বলতে চাই, প্রধানমন্ত্রীর উচ্চাভিলাষের কাছে সংগ্রামী জনগণ নিজেদের কখনোই সঁপে দেবে না। আগামী জাতীয় সংসদ নির্বাচন নিয়ে জনগণ ক্ষমতাসীন মহলের যেকোনো ষড়যন্ত্র রুখে দেবে।

বিএনপির এই নেতা বলেন, যে সরকার উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে নিজেদের অভিপ্রায় পূরণ করতে নির্বাচন কমিশন গঠন করেছে, নিজেদের ঘরের ছেলেকে প্রধান নির্বাচন কমিশনার বানিয়েছে, সেই সরকার জনগণের ইচ্ছার সঠিক প্রতিফলন ঘটাবে-এটি কেউ বিশ্বাস করে না। কারণ বর্তমান বিনা ভোটের সরকার যদি গণতন্ত্র, নির্বাচন এবং মানুষের ভোটাধিকারে বিশ্বাস করত তাহলে আজ চারদিকে প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে (সিইসি) সরে যাওয়ার যে তুমুল দাবি উঠেছে, সেটিকে আমলে নিয়ে সব দলের সঙ্গে পরামর্শ করে একজন যথার্থ নিরপেক্ষ ব্যক্তিকে সাংবিধানিক এই পদটিতে বসানোর জন্য রাষ্ট্রপতিকে পরামর্শ দিতেন।

 


মন্তব্য