kalerkantho


পুরনো গৌরব ফিরিয়ে আনার আশা

সংসদে পাট বিল পাস

নিজস্ব প্রতিবেদক    

১৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:৩৪



সংসদে পাট বিল পাস

পাট অধ্যাদেশ ১৯৬২ রহিত করে নতুন আইন প্রণয়ের লক্ষ্যে আজ মঙ্গলবার জাতীয় সংসদে পাট বিল ২০১৭ পাস করা হয়েছে। বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রী মির্জা আজম বিলটি পাসের প্রস্তাব করলে তা কণ্ঠভোটে পাস হয়।

এর আগে বিলটির ওপর বিরোধীদলীয় সদস্যদের জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাব কণ্ঠভোটে নাকচ হয়ে যায়।

স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদ অধিবেশনে বিলটির ওপর জনমত যাচাই ও বাছাই কমিটিতে পাঠানোর প্রস্তাবের জবাবে প্রতিমন্ত্রী সংসদে বলেন, "নির্বাচনী প্রমিতশ্উতি অনুযায়ী পাট ও পাট খাতের উন্নয়নে ব্যাপক পদক্ষেপ নেওয়া হয়েছে। পাটকে কৃষিপণ্যের স্বীকৃতি দিয়ে চাষিদের নানা ধরনের প্রণোদনা দেওয়া হচ্ছে। পাটের ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করা হয়েছে। বিশ্বের ৩০টি দেশে পাট ও পাটজাত দ্রব্য রপ্তানি করা হচ্ছে। " সরকারের এ পদক্ষেপের ফলে পাটের সোনালী অতীত আবারো ফিরে আসবে বলে আশা প্রকাশ করেন তিনি।

পাস হওয়া বিলে পাট ও পাটজাত পণ্য উত্পাদন ও প্রসার, গবেষণা ও পাট চাষে উদ্বুদ্ধ করতে সরকারের ক্ষমতা, পাট ও পাটজাত পণ্যের ব্যবসা উন্নয়ন ও সম্প্রসারণে সরকারের ক্ষমতা, লাইসেন্স প্রদান, লাইসেন্স বাতিল, আপিল করা, আপিল বাতিল, মূল্য নির্ধারণ, বেলিং চার্জ, এজেন্ট ও ব্রোকার, প্রেস, গুদাম ইত্যাদি অধিগ্রহণ করে বিধানের প্রস্তাব করা হয়েছে।

এ ছাড়া বিলে পাট ও পাটজাত পণ্যের ওপর উন্নয়ন ফি আরোপ, উন্নয়ন তহবিল গঠন, চুক্তি নিবন্ধন, বিক্রয় নির্দেশ ও নিষিদ্ধকরণের ক্ষমতা, পাটখড়ি থেকে বাণিজ্যক পণ্য উৎপাদন, ক্রয়-বিক্রয় সম্পর্কে নির্দেশনা প্রদানের ক্ষমতা, চুক্তি প্রতিপালন নিশ্চিত করার ক্ষমতা, অপরাধ ও দণ্ডের বিধানসহ সংশ্লিষ্ট বিষয়ে বিধান রাখা হয়েছে।


মন্তব্য