kalerkantho


পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা : আবুল হোসেন

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ২২:০৫



পদ্মা সেতু নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ সর্বৈব মিথ্যা : আবুল হোসেন

পদ্মা সেতু নির্মাণে দুর্নীতির যড়যন্ত্রের অভিযোগ কানাডার আদালতে নাকচ হয়ে যাওয়ার পর সাবেক যোগাযোগ মন্ত্রী সৈয়দ আাবুল হোসেন আজ এক বিবৃতিতে বলেছেন, আদালতের এই রায় প্রমাণ করে, পদ্মা সেতু নিয়ে তাকে জড়িয়ে বিশ্বব্যাংক যে অভিযোগ করেছিল-তা সর্বৈব মিথ্যা।
তিনি বিশ্বব্যাংক এবং যেসব সমালোচনাকারী পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে সেসময়ে সরব হয়েছিলেন, তাদের কঠোর সমালোচনা করেছেন। তিনি মনে করেন পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির যড়যন্ত্রের অভিযোগ করে তার বিরুদ্ধে মিথ্যাচার করা হয়েছে।
পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির ষড়যন্ত্রের মামলার রায়ে কোনো দুর্নীতির প্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে গতকাল কানাডার টরোন্টোর একটি আদালত রায় দিয়েছে। এর ফলে এসএনসি-লাভালিনের অভিযুক্ত তিন কর্মকর্তা মামলা থেকে রেহাই পেয়েছেন।
সংবাদমাধ্যমে পাঠানো বিবৃতিতে সৈয়দ আবুল হোসেন বলেন, বাংলাদেশের কয়েকটি পত্রিকার অসত্য রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করে, বিশ্বব্যাংক যে কাল্পনিক অভিযোগ তার বিরুদ্ধে দাঁড় করেছিল- তা ছিল কেবল মিথ্যা নয়, ষড়যন্ত্রমূলক। তিনি বিশ্বব্যাংক ও বাংলাদেশী কতিপয় স্বার্থান্বেষী মহলের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছিলেন বলে দাবি করেন।
তিনি বলেন, ‘এ ষড়যন্ত্র তার দীর্ঘদিনের অর্জিত সুনাম, মর্যাদা, সততা, নিষ্ঠার ও আন্তরিকতার সাথে দায়িত্ব পালনের পথকে বাধাগ্রস্ত করেছে। তাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার অপচেষ্টা করা হয়েছে। ’ 
উল্লেখ্য, পদ্মা সেতু প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগ উঠার পর তৎকালীন যোগাযোগমন্ত্রী সৈয়দ আবুল হোসেন পদত্যাগ করেন। আর দুর্নীতির অভিযোগ তুলে আন্তর্জাতিক ঋণদাতা সংস্থা বিশ্বব্যাংক ২০১৩ সালে পদ্মা সেতু প্রকল্পে ঋণ বাতিল করে।


মন্তব্য