kalerkantho


বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ: খাদ্যমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ১৯:১৫



বাংলাদেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ: খাদ্যমন্ত্রী

বাংলাদেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ উল্লেখ করে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার বাংলাদেশের প্রতিটি সেক্টরে উল্লেখযোগ্য উন্নয়ন করেছে। তার মধ্যে অন্যতম হচ্ছে খাদ্য সেক্টর।

আজ বুধবার নিউজিল্যান্ডের রাজধানী ওয়েলিংটনে অবস্থিত পার্লামেন্ট ভবনে দেশটির প্রাইমারী ইন্ডাস্ট্রিজ সম্পর্কিত মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী ডেভিড বেনেট-এর সঙ্গে অনুষ্ঠিত এক বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন। ওয়েলিংটনের স্থানীয় সময় বিকাল ৫টায় এই বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।
ঢাকায় প্রাপ্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ কথা জানানো হয়েছে।

খাদ্যমন্ত্রী আরো বলেন, বর্তমান সরকারের অন্যতম প্রধান লক্ষ্য বাংলাদেশের জনগনের নিরাপদ খাদ্য নিশ্চিত করা। এ লক্ষ্যে বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষ কাজ করে যাচ্ছে।

বৈঠকে তিনি বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন কার্যক্রম সম্পর্কে নিউজিল্যান্ডের মন্ত্রী ডেভিড বেনেটকে অবহিত করেন এবং নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের কার্যক্রম বাস্তবায়নে প্রয়োজনীয় কারিগরী ও অন্যান্য সহযোগিতা পাওয়ার আশাবাদ ব্যক্ত করেন। এ ছাড়াও বৈঠকে বন্ধুত্বপূর্ণ পরিবেশে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক বহু বিষয় নিয়েও আলোচনা হয়।

এ সময় নিউজিল্যান্ডের মন্ত্রী ডেভিড বেনেট বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের বর্তমান কার্যক্রম এবং এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের ভবিষ্যৎ কার্যক্রমে বিভিন্ন কারিগরি ও অন্যান্য সহযোগিতা প্রদানের আশ্বাস দেন।

এর আগে গত ৩ ফেব্রুয়ারি অস্ট্রেলিয়ার রাজধানী ক্যানবেরায় অনুষ্ঠিত দেশটির কৃষি ও পানিসম্পদ মন্ত্রী লুক হার্টসুইকারের সঙ্গে এক বৈঠকে মিলিত হন খাদ্যমন্ত্রী। এই বৈঠকেও নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন কার্যক্রম এবং দ্বিপাক্ষিক অন্যান্য বহু বিষয় নিয়ে আলোচনা হয়।

উল্লেখ্য, ফুড স্ট্যান্ডার্ড অস্ট্রেলিয়া নিউজিল্যান্ড (এফএসএএনজেড) জেস মিনিস্ট্রি ফর প্রাইমারি ইন্ড্রাট্রিজ ফর নিউজিল্যান্ড এর আমন্ত্রণে খাদ্যমন্ত্রী অ্যাডভোকেট কামরুল ইসলাম এর নেতৃত্বে ছয় সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল বর্তমানে অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড সফরে রয়েছেন। সফর থেকে অর্জিত অভিজ্ঞতা বাংলাদেশ নিরাপদ খাদ্য কর্তৃপক্ষের বিভিন্ন কার্যক্রম পরিচালনা এবং এর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য বাস্তবায়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে।


মন্তব্য