kalerkantho


সংবিধানের মূল নীতিতে ধর্ম নিরপেক্ষতা যুক্ত করা হয়েছে : ত্রাণমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১১ জানুয়ারি, ২০১৭ ১৯:০২



সংবিধানের মূল নীতিতে ধর্ম নিরপেক্ষতা যুক্ত করা হয়েছে : ত্রাণমন্ত্রী

 দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া বলেছেন, বাংলাদেশের সংবিধানের মূল নীতিতে ধর্ম নিরপেক্ষতা যুক্ত করা হয়েছে। ধর্মনিরপেক্ষ (সেকুলার) রাষ্ট্রের স্বপ্ন নিয়ে বাংলাদেশের স্বাধীনতা আন্দোলন শুরু হয়।

ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে সবাই সে যুদ্ধে অংশ নিয়েছে।
মন্ত্রী আজ মাগুরায় হাজরা তলাস্থ শংকর বেদান্ত মঠ ও মিশনে সনাতন হিন্দু ধর্মের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন।
বর্তমান সরকার ধর্মের নামে জঙ্গিবাদ ও সংখ্যালঘুদের উপর হামলাকারীদের সমূলে উৎপাটন করবে। ইতোমধ্যে জঙ্গিদের ডানা ভেঙ্গে দেয়া হয়েছে এ কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, বাংলাদেশে জঙ্গিবাদ ও উগ্র সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই।
তিনি বলেন, সাম্প্রতিক সময়ে জঙ্গিবাদের যে উত্থান হয়েছিল সরকার কঠোর হস্তে তা দমন করেছে। সরকারের এ প্রচেষ্টায় সামিল হতে মহল্লাভিত্তিক জঙ্গিবাদ প্রতিরোধ কমিটি গঠন করতে তিনি উপস্থিত সকলের প্রতি আহবান জানান।
তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী ঘোষিত “ধর্ম যার যার, উৎসব সবার”-এ নীতির উপর অটল বিশ্বাস রেখে সকল ধর্মীয় উৎসবে সকল ধর্মের অনুসারীরা আন্তরিকভাবে অংশ নিচ্ছে। ধর্মের অপব্যাখ্যা দিয়ে যারা বিভিন্ন ধর্মে বিভেদ সৃষ্টির পাঁয়তারা করছে তাদের সমাজ থেকে উৎখাতের আহবান জানান মন্ত্রী।
ধর্মীয় সম্প্রীতির হাজার বছরের সংস্কৃতি বাংলাদেশ সব সময় লালন করবে। জঙ্গিবাদ ও ধর্মীয় উগ্রতার বিরুদ্ধে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার উপরও তিনি গুরুত্বারোপ করেন।
ভারতের পশ্চিম বঙ্গের বিজেপির সভাপতি শ্রী দিলীপ ঘোষ, এমএলএ, বাংলাদেশে ভারতের রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রীংলা, বিজেপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য শ্রী অরুণ হালদার, সংসদ সদস্য মেজর জেনারেল (অব) এটিএম আব্দুল ওয়াহাব, সংসদ সদস্য শ্রী রনজিত রায়, প্রধানমন্ত্রীর সহকারি একান্ত সচিব সাইফুজ্জামান শিখর, মাগুরার জেলা প্রশাসক মাহবুবুর রহমান প্রমুখ সম্মেলনে বক্তব্য রাখেন।


মন্তব্য