kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


কাউন্সিলের নিরাপত্তায় সোয়াটসহ ১০ হাজার পুলিশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২২ অক্টোবর, ২০১৬ ১০:৩২



কাউন্সিলের নিরাপত্তায় সোয়াটসহ ১০ হাজার পুলিশ

ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের জাতীয় কাউন্সিলের নিরাপত্তায় সোহরাওয়ার্দী উদ্যান ও এর আশপাশের এলাকায় আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর মোট ১০ হাজার সদস্য মোতায়েন করা হয়েছে। এ ছাড়া সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের নিরাপত্তার নির্দেশনা দেবে স্পেশাল সিকিউরিটি ফোর্স (এসএসএফ)।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, আওয়ামী লীগের সম্মেলনে কোনো ধরনের সন্ত্রাসী কার্যক্রমের শিকার হওয়ার হুমকি নেই। সারা দেশ থেকে দলীয় নেতাকর্মীরা উৎসবমুখর পরিবেশে সম্মেলনে যোগ দেবেন। তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী যেকোনো হুমকির মোকাবিলায় প্রস্তুত আছে।
 
এদিকে ডিএমপি কমিশনার আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, পুলিশ ও অন্যান্য আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্য ছাড়াও কাউন্সিলের নিরাপত্তায় যুবলীগ, আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগের স্বেচ্ছাসেবকরা একসঙ্গে কাজ করে নিরবচ্ছিন্ন এবং সুদৃঢ় নিরাপত্তা ব্যবস্থা নিশ্চিত করছে। এ ছাড়া কাউন্সিলের জন্য রাজধানীর কয়েকটি সড়ক বন্ধ থাকতে পারে। ফলে নগরবাসীর সাময়িক অসুবিধার জন্য দুঃখ প্রকাশ করেছেন ডিএমপি কমিশনার। শুক্রবার থেকে সোহরাওয়ার্দী উদ্যানের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিয়ে আছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ। শুক্রবার থেকেই অনুমোদিত ব্যক্তি ছাড়া কাউকে ভেতরে ঢুকতে দেওয়া হচ্ছে না।
 
সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন ও কন্ট্রোল রুম :
সোহরাওয়ার্দী উদ্যান, শাহবাগ ও এর আশপাশের এলাকায় সিসিটিভি ক্যামেরা স্থাপন করা হয়েছে। এগুলোর ফুটেজ পর্যবেক্ষণের জন্য রয়েছে তিনটি কন্ট্রোল রুম। এ ছাড়া রয়েছে তিন আইটি এক্সাপার্ট।
 
৭টি আর্চওয়ে :
সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে প্রবেশের জন্য ৭টি প্রবেশমুখেই আর্চওয়ে স্থাপন করা হয়েছে। পুলিশ সদস্যরা মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে আগতদের দেহ তল্লাশি করবে। উদ্যানে শিখা চিরন্তনের গেট দিয়ে প্রধানমন্ত্রীসহ ভিভিআইপি ও ভিআইপিরা গাড়িসহ প্রবেশ করবেন। এ ছাড়া ইঞ্জিনিয়ারিং ইনস্টিটিউটের গেট দিতে বিভিন্ন জেলার সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকরা গাড়ি রেখে প্রবেশ করবেন। তাদের জন্য বিমানবন্দরের মতো স্যাটেল বাসের ব্যবস্থা করা হয়েছে। এসব বাসযোগে তাদের গেট থেকে মঞ্চে নেওয়া হবে।
 
সোয়াট ও ডগ স্কোয়াড :
কাউন্সিলের নিরাপত্তায় ডিএমপির পুলিশ ছাড়াও পুলিশের বিশেষায়িত সোয়াট টিম, স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি), র‌্যাবের ডগ স্কোয়াড মোতায়েন করা হয়েছে।
 
ব্যাগ-অস্ত্র বহনে নিষেধাজ্ঞা :
উদ্যানে যেকোনো ধরনের ব্যাগ, পোটলা, ধারলো অস্ত্র, দাহ্য পদার্থ ও লাইসেন্স করা অন্ত্র নিয়েও প্রবেশে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।
 


মন্তব্য