kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


মানুষের নিরাপত্তার দায়িত্ব যে কোনো মূল্যে পালন করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ২০:৩৩



মানুষের নিরাপত্তার দায়িত্ব যে কোনো মূল্যে পালন করা হবে : প্রধানমন্ত্রী

ফাইল ছবি

দেশের মানুষের নিরাপত্তার দায়িত্ব যে কোনো মূল্যে পালন করা হবে বলে জানিয়েছেন  প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।   আওয়ামী লীগের ২০তম ত্রি-বার্ষিক জাতীয় সম্মেলন সামনে রেখে গণভবনে বুধবার সন্ধ্যায় দলের কার্যনির্বাহী সংসদের বৈঠকের শুরুতে বক্তব্যে সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ নিয়ে কথা বলেন শেখ হাসিনা।

আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর অভিযানে সন্দেহভাজন জঙ্গি নিহতের সমালোচনার জবাবে শেখ হাসিনা বলেন, অনেক মানুষের জীবন বাঁচাতে সন্ত্রাসীদের আঘাত দেওয়াতে অসুবিধা কিসের?  

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দেশের মানুষের নিরাপত্তা দেওয়া যেহেতু আমাদের দায়িত্ব, সেহেতু দেশের শান্তি-শৃঙ্খলা রক্ষা আমাদের দায়িত্ব। যে কোনো মূল্যে আমরা তা রক্ষা করব। আমাদের কথা স্পষ্ট- ‘জিরো টলারেন্স টু টেরোরিজম’।

সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ অব্যাহত রাখার ঘোষণা দিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, সন্ত্রাসকে আমরা কোনো মতেই প্রশয় দেব না। তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে, তাদের বিরুদ্ধে আমরা ব্যবস্থা নেব। আমাদের অবস্থান অত্যন্ত স্পষ্ট। আমরা কোনোমতেই জঙ্গিবাদ আর সন্ত্রাসকে প্রশয় দেব না।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, কিন্তু আমরা একটা জিনিস লক্ষ করেছি। যখনই আমাদের আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী জঙ্গিদের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যায়, যখন কেউ মৃত্যুবরণ করে তখন কেন যেন বিএনপি নেত্রী ও তার দলের লোকেরা হাহাকার হরে ওঠে। এই হাহাকারের অর্থটা আমি বুঝি না, হা-হুতাশ কান্নাকাটি কেন? বিএনপি অপরাধীদের প্রশয় দিচ্ছে মন্তব্য করে বিএনপি নেতাদের সতর্ক করে তিনি বলেছেন, অপরাধীদের প্রশয় দেওয়া আর অপরাধ করা একই কথা।  

বিএনপি নেতৃত্বের মধ্যে সন্ত্রাসী ও জঙ্গিদের মদদ দেওয়ার প্রবণতা দেখা যায় মন্তব্য করে তিনি বলেন, আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারি বাহিনী অ্যাকশনে গেলে বিএনপি জঙ্গিদের পক্ষ নিয়ে সাফাই গাইতে শুরু করে। তাদের বিরুদ্ধে কেন অ্যাকশন নেওয়া হল এই প্রশ্ন তাদের।

যুদ্ধাপরাধীদের আমরা বিচার করেছি। বিচার হলেই এর প্রতিবাদ…যারা যুদ্ধাপরাধীদের পক্ষে, তাদের সমর্থন করছে, লাখো শহীদের রক্তে রঞ্জিত পতাকা তাদের হাতে তুলে দিয়ে মন্ত্রী বানিয়ে মর্যাদা দিয়েছে, তাদের বিচার ইনশাল্লাহ একদিন বাংলার মাটিতে করতে হবে। তাদের বিচার হবে।   অপরাধীদের প্রশয় দেওয়া, আর অপরাধ করা একই কথা- এটা তাদের মনে রাখতে হবে।

 


মন্তব্য