kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'সম্মেলনস্থলে ভিআইপি ছাড়া গাড়ি প্রবেশ করবে না'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৯ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:০৩



'সম্মেলনস্থলে ভিআইপি ছাড়া গাড়ি প্রবেশ করবে না'

 ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ২০তম জাতীয় সম্মেলনস্থলে ভিআইপি ছাড়া কোনও গাড়ি প্রবেশ করবে না।

তিনি বলেন, এবারের কাউন্সিলে নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় এলাকা থেকে শাহবাগ, টিএসসি, দোয়েল চত্বর এলাকায় সিসিটিভি ক্যামেরার আওতায় আনা হয়েছে।

তিনটি কন্ট্রোল রুম থেকে মনিটরিং করা হবে। কারো গতিবিধি সন্দেহজনক মনে হলে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা গ্রহণ করবে। সম্মেলনস্থলে ৭টি গেটে আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টর দিয়ে সার্চ করে প্রবেশ করানো হবে। রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে বুধবার বিকেলে নিরাপত্তা ব্যবস্থা পরিদর্শন শেষে তিনি এ সব তথ্য জানান।

আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, ভিহিকেল মিরর সার্চ করে গাড়ি সম্মেলনস্থলে প্রবেশ করবে। উদ্যানের শিখা চিরন্তনের গেট দিয়ে ভিআইপিরা প্রবেশ করবেন। প্রধানমন্ত্রী, স্পিকার, মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী শিখা চিরন্তনের গেট দিয়ে প্রবেশ করবে। মূল প্যান্ডেল ও মঞ্চের নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকবে এসএসএফ। এ কাউন্সিলকে ঘিরে কয়েকস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, কাউন্সিলকে ঘিরে বিগত ১৫ দিন ধরেই চলছে কর্মযজ্ঞ। কাউন্সিলকে উৎসবমুখর পরিবেশে আয়োজন করতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কয়েকস্তরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা সাজিয়েছে। এছাড়া নেতাকর্মীরাও অংশ নেবে নিরাপত্তায়। ঢাকা মহানগরে নেওয়া হয়েছে সুদৃঢ় নিরাপত্তা ব্যবস্থা। আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবক লীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের নিয়ে নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেওয়া হবে পুরো রাজধানীকে।

এক প্রশ্নের উত্তরে ডিএমপি কমিশনার বলেন, নির্দিষ্ট কোনও হুমকি থেকে নিরাপত্তা ব্যবস্থা সাজানো হয়নি। একটি চক্র দৃশ্যমান উন্নয়নকে ব্যাহত করার উদ্দেশ্যে বিভিন্ন ধরনের ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। দেশ এখন সুপারসনিক গতিতে এগিয়ে যাচ্ছে। একটি চক্র এ উন্নয়নকে বাধাগ্রস্ত করতেই বিভিন্ন ধরনের চক্রান্ত করে চলছে। তবে নির্দিষ্ট কোনও হুমকির জন্য নয়, সফলভাবে সমাপ্তির জন্যই নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।


মন্তব্য