kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ বিষয়ে বক্তব্য দেবেন আজ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৭ অক্টোবর, ২০১৬ ০৮:২২



বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ বিষয়ে বক্তব্য দেবেন আজ

তিন দিনের সফরে ঢাকায় এসেছেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট জিম ইয়ং কিম। ২০০৭ সালের পর কোনো বিশ্বব্যাংকপ্রধানের এই বাংলাদেশে সফর।

গতকাল রবিবার বিকেলে এমিরেটস এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে ঢাকায় পৌঁছেন জিম ইয়ং কিম। হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে তাঁকে স্বাগত জানান অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত।

বিমানবন্দর থেকে কিমকে নেওয়া হয় র‌্যাডিসন হোটেলে। আজ সোমবার বিকেলে ঢাকার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পাশে বসে বাংলাদেশের দারিদ্র্যজয়ের গল্প শুনবেন বিশ্বব্যাংকপ্রধান। 'দারিদ্র্যমুক্ত বিশ্বে বাংলাদেশ' শীর্ষক বক্তব্য দেবেন তিনি।

বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্টের আগমন উপলক্ষে বিমানবন্দরে অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের সচিব মোহাম্মদ মেজবাহউদ্দিন, বিশ্বব্যাংক সদর দপ্তরে বাংলাদেশের বিকল্প নির্বাহী পরিচালক মোহাম্মদ মোশাররাফ হোসাইন ভূঁইঞা, ঢাকায় বিশ্বব্যাংকের আবাসিক প্রতিনিধি চিমিয়াও ফানসহ সংস্থার ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারাও উপস্থিত ছিলেন।

দীর্ঘ প্রায় এক দশক পর বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্টের বাংলাদেশে আগমনকে বেশ গুরুত্বের সঙ্গে দেখছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত। দারিদ্র্য বিমোচনে বাংলাদেশ যে সাফল্য দেখিয়েছে তার স্বীকৃতি হিসেবেই বিশ্বব্যাংকপ্রধান বাংলাদেশে এসেছেন বলে মনে করেন তিনি।

এ প্রসঙ্গে অর্থমন্ত্রী বলেন, "দারিদ্র্য বিমোচন ও সহস্রাব্দ উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এমডিজি) অর্জনে বাংলাদেশের সাফল্যে বিশ্বব্যাংক প্রেসিডেন্ট অভিভূত। তাই নিজের আগ্রহেই বাংলাদেশ সফর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। সফরের উপলক্ষ হিসেবে বেছে নিয়েছেন বিশ্ব দারিদ্র্য বিমোচন দিবস (১৭ অক্টোবর)। বাংলাদেশে এবার দিবসটি ভিন্ন আঙ্গিকে পালিত হবে। ''

আজ সোমবার অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সঙ্গে সকাল পৌনে ৯টায় সাক্ষাতের মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ সফরের কর্মসূচি শুরু করবেন বিশ্বব্যাংকপ্রধান। সচিবালয়ে অর্থমন্ত্রীর সঙ্গে ঘণ্টাখানেক বৈঠক শেষে যৌথভাবে সংবাদ সম্মেলন করবেন তাঁরা।

বিকেল ৩টায় রাজধানীর ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে 'দারিদ্র্যমুক্ত বিশ্বে বাংলাদেশ' শীর্ষক গণবক্তব্য দেবেন বিশ্বব্যাংকপ্রধান। ওই অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির আসন অলংকৃত করবেন তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে বাংলাদেশের দারিদ্র্য বিমোচনের কৌশলগুলো শোনাবেন। সেখানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন বিশ্বব্যাংকের প্রধান অর্থনীতিবিদ পল রোমার। অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেবেন বিশ্বব্যাংকের দক্ষিণ এশিয়া অঞ্চলের ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যানিটি ডিক্সন।

অনুষ্ঠানে দারিদ্র্যজয়ে বাংলাদেশের সাফল্য নিয়ে 'এন্ড পভার্টি' শীর্ষক একটি গান গাইবেন বাংলাদেশের জনপ্রিয় সংগীতশিল্পী হাবিব ওয়াহিদ। অনুষ্ঠানের এ পর্ব শেষে উপস্থাপন করা হবে 'প্রসপার বাংলাদেশ' শিরোনামে একটি প্রবন্ধ।

অনুষ্ঠানের পরের পর্ব শুরু হবে 'এন্ড গ্লোবাল পভার্টি বাই ২০৩০ : শেয়ারিং বাংলাদেশস এক্সপেরিয়েন্স' বা '২০৩০ সাল নাগাদ দারিদ্র্যমুক্ত বিশ্ব : বাংলাদেশের অভিজ্ঞতা বিনিময়' শীর্ষক প্যানেল আলোচনা। সেখানেও বক্তব্য দেবেন বিশ্বব্যাংকের প্রেসিডেন্ট। অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতসহ সরকারের ঊর্ধ্বতনরাও থাকবেন এই পর্বে।

মঙ্গলবার সকালে জিম ইয়ং কিম গ্রাম ঘুরে বাংলাদেশের দারিদ্র্যজয়ের চিত্র দেখবেন। বিশ্বব্যাংকের অর্থায়নে বাস্তবায়িত প্রকল্প পরিদর্শন করতে বরিশালের বাবুগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রাকুদিয়া গ্রামে যাবেন তিনি। সেখান থেকে ফিরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে বৈঠক করবেন বিশ্বব্যাংকপ্রধান। বিকেলে বিশ্বব্যাংকের ঢাকা কার্যালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে বিদায় নেবেন তিনি।

এর আগে বিশ্বব্যাংকের তিনজন প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশ সফর করেছেন। তাঁরা হলেন রবার্ট ম্যাকনামারা, পল উলফোভিত্জ ও জেমস উলফেনসন।


মন্তব্য