kalerkantho

রবিবার। ৪ ডিসেম্বর ২০১৬। ২০ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৩ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


টেকসই খাদ্য নিরাপত্তার জন্য আরো বিনিয়োগ প্রয়োজন : বিশেষজ্ঞদের অভিমত

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৫ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৫৫



টেকসই খাদ্য নিরাপত্তার জন্য আরো বিনিয়োগ প্রয়োজন : বিশেষজ্ঞদের অভিমত

প্রতীকী ছবি

দেশ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করলেও ভবিষ্যৎ ও সার্বিক খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে দেশের কৃষি খাতে বিপুল বিনিয়োগ প্রয়োজন বলে মনে করেন কৃষি খাদ্য বিশেষজ্ঞরা।
আগামীকাল বিশ্ব খাদ্য নিরাপত্তা দিবসের প্রাক্কালে বিশেষজ্ঞরা এসব কথা বলেন।


দিবসটির এবারের প্রতিপাদ্য ‘জলবায়ু পরিবর্তিত হচ্ছে। অবশ্যই খাদ্য এবং কৃষিও পরিবর্তিত হচ্ছে। ’
বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশও পরিবর্তনশীল প্রকৃতিতে বিভিন্ন চ্যালেঞ্জ সত্ত্বেও অধিক খাদ্য উৎপাদনের উপর গুরুত্ব দিচ্ছে।
এ ব্যাপারে বাংলাদেশ পশু সম্পদ গবেষণা প্রতিষ্ঠানের সাবেক মহাপরিচালক জাহাঙ্গীর আলম টেকসই খাদ্য নিরাপত্তার জন্য জলবায়ু পরিবর্তনকে গুরুতর হুমকি হিসেবে উল্লেখ করে এখানে বিনিয়োগ বৃদ্ধির ওপর গুরুত্বারোপ করেন।
তিনি বলেন, চাল উৎপাদনের মাধ্যমে দেশে খাদ্য নিরাপত্তা অর্জিত হলেও ভবিষ্যৎ খাদ্য নিরাপত্তা মৎস্য ও পশু সম্পদসহ বৃহত্তর কৃষি খাতে বিনিয়োগ বৃদ্ধির ওপর নির্ভর করে।
তিনি বলেন, ২০১১-১২ অর্থবছরের বাজেটে কৃষিখাতে ভর্তুকি ছিল ৫ শতাংশ এবং চলতি অর্থবছরে তা ৩ শতাংশে নেমে আসে।
এ ব্যাপারে খাদ্য মন্ত্রণালয়ের ফুড পলিসি মনিটরিং ইউনিটের মহাপরিচালক মোহাম্মদ নাসের বলেন, টেকসই খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে গম এবং অন্যান্য পুষ্টিকর খাদ্যের উৎপাদন বাড়ানো উচিত।  
তিনি বলেন, দেশে দুধ, মাংস এবং ডিম উৎপাদনে ৪০ শতাংশ এবং মাছ উৎপাদনে ১০ শতাংশ ঘাটতি রয়েছে।
তিনি বলেন, পাশাপাশি ডাল ও তেল বীজ আমদানির জন্য দেশকে বিপুল অংকের টাকা ব্যয় করতে হচ্ছে। তাই এসব শস্যের উৎপাদন বাড়ানো উচিত।
টেকসই খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করার উদ্দেশ্যে সরকারের বিভিন্ন উদ্যোগের কথা উল্লেখ করে খাদ্য সচিব এ এম বদরুদ্দোজা বলেন, দেশে ইতোমধ্যেই লবণাক্ততা সহনক্ষম জাতের শস্যের প্রচলন হয়েছে, যা জলবায়ু পরিবর্তনের বিরূপ প্রতিক্রিয়া মোকাবেলায় সক্ষম।
অন্যদিকে কৃষি সচিব মোহাম্মদ মইনুদ্দিন আবদুল্লাহ বলেন, ‘প্রধান প্রধান খাদ্য শস্যে টেকসই নিরাপত্তা নিশ্চিত করার লক্ষ্যে সরকার বন্যা ও লবণাক্ততা প্রবন এলাকার জন্য জলবায়ু পরিবর্তনের সাথে মানানসই জাতের ধান উৎপাদন শুরু করেছে। - বাসস।


মন্তব্য