kalerkantho

বৃহস্পতিবার । ৮ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৪ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৭ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


চীনের ১৫টি কম্পানির সঙ্গে ১৩.৬ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সই

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

১৪ অক্টোবর, ২০১৬ ২৩:২৭



চীনের ১৫টি কম্পানির সঙ্গে ১৩.৬ বিলিয়ন ডলারের চুক্তি সই

চীনের ১৫টি কম্পানির সঙ্গে বাংলাদেশি ব্যবসায়ীদের ১৩ দশমিক ৬ বিলিয়ন অর্থাৎ এক হাজার তিনশ ৬০ কোটি ডলারের চুক্তি সই হয়েছে। রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে বাংলাদেশ-চায়না বিজনেস ফোরামের যৌথ বৈঠকের পর দুই দেশের ব্যবসায়ীদের মধ্যে এসব চুক্তি হয় বলে জানান এফবিসিসিআই সভাপতি।

আজ শুক্রবার বিকেলে চীনা প্রেসিডেন্টের সঙ্গে আসা দেশটির ৮৬ সদস্যের ব্যবসায়ী প্রতিনিধি দলের সঙ্গে বাংলাদেশি ব‌্যবসায়ীদের এই বৈঠক আয়োজন করে এফবিসিসিআই ও চায়না কাউন্সিল ফর দ্য প্রমোশন অব ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড-সিসিপিআইটি। বৈঠকে উভয় দেশের ব্যবসায়ীরা বক্তব্য রাখেন, বিভিন্ন বিষয়ে মত বিনিময় করেন তারা। বৈঠক শেষে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ ও বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের জ‌্যেষ্ঠ সচিব হেদায়েত উল্লাহ আল মামুনের উপস্থিতিতে এসব চুক্তি সই হয়।

বৈঠকের পর এফবিসিসিআই সভাপতি মাতলুব আহমেদ বলেন, “আমাদের মধ্যে ১৯টি চুক্তি সই হয়েছে। আশা করছি, পরবর্তীতে এ সংখ্যা বেড়ে ৫০টির মতো হতে পারে। চীনের ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশে বিনিয়োগ করলে নিশ্চয় লাভবান হবেন। ”

অপরদিকে সিসিপিআইটির ভাইস চেয়ারম্যান চ্যান ঝউ বলেন, “অবকাঠামোগত উন্নয়নে বাংলাদেশ এশিয়া মহাদেশে বিনিয়োগ ব্যাংকের মধ্যেই রয়েছে। আমরা আস্থা নিয়ে এ দেশের বিনিয়োগ পার্কে বিনিয়োগ করব। আমাদেরই এই প্রতিনিধি দলে অনেক উদ্যোক্তা রয়েছেন, যারা এদেশে বিনিয়োগ করতে চান।

তিনি বলেন, “চামড়া, অবকাঠামো, তৈরি পোশাক, ওষুধ, অটোমোবাইলসহ বিভিন্ন খাতে বাংলাদেশে বিনিয়োগের কথা চিন্তা করছি আমরা। চীনের অর্থায়নে বাংলাদেশে উৎপাদিত পণ্য চীনে রপ্তানি করে দুদেশের মধ্যে বাণিজ্য বৈষম্য দূর করা সম্ভব। ”

বাংলাদেশের জ্বালানি খাতে সহযোগিতার প্রস্তাব করে এই চীনা ব‌্যবসায়ী বলেন, “আমাদের দেশের প্রযুক্তি ও দক্ষতা বাংলাদেশের সঙ্গে শেয়ার করতে চাই। এফবিসিসিআই ও সিসিপিআইটি’র মাধ্যমে নতুন প্ল্যাটফর্ম তৈরি হয়েছে, যার মাধ‌্যমে উভয় দেশের ব্যবসায়ীরা বাণিজ্য ও বিনিয়োগ সম্ভাবনা কাজে লাগাতে পারবেন। ”

তিনি আরো বলেন, “এ দেশে বিনিয়োগ ও ব্যবসার ভালো পরিবেশ রয়েছে। এ কারণেই আমরা এ দেশে বিনিয়োগে আগ্রহী। আমাদের প্রেসিডেন্টের এ সফর উভয় দেশের শিল্প ও বাণিজ্য উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখবে। ”

উল্লেখ্য, দুই দিনের সফরে আজ সকালে ঢাকা পৌঁছান চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিং। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও শি’র নেতৃত্বে উভয় দেশের প্রতিনিধি দলের দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে ২৭টি চুক্তি ও সমঝোতা স্মারক সই হয়েছে।


মন্তব্য