kalerkantho

শনিবার । ১০ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৬ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৯ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ‘শ্রোতা’ নামে নতুন জোটের আত্মপ্রকাশ

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৯ অক্টোবর, ২০১৬ ০০:০৪



সড়ক দুর্ঘটনা রোধে ‘শ্রোতা’ নামে নতুন জোটের আত্মপ্রকাশ

সড়ক দুর্ঘটনা প্রতিরোধে সচেতনতা আনা ও এর সামগ্রিক ব্যবস্থাপনায় উন্নয়ন ঘটাতে ‘সেইফ রোডস অ্যান্ড ট্রান্সপোর্ট এলায়েন্স’ (শ্রোতা) নামে একটি নতুন জোটের আত্মপ্রকাশ হয়েছে।  
৬টি সংগঠনের এই জোট ভবিষ্যতে একটি জাতীয় তথ্য ভান্ডার তৈরিতে কাজ করবে।

একটি কার্যকর ও সমন্বিত উদ্যোগের অংশ হিসেবে এই জোট কাজ করবে।  
বিশিষ্ট অর্থনীতিবিদ ও সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ড. হোসেন জিল্লুর রহমান আজ শনিবার ব্র্যাকের সহযোগিতায় জাতীয় প্রেসক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এই জোটের আনুষ্ঠানিক ঘোষণা ও ভবিষ্যৎ রূপরেখা তুলে ধরেন।  
ব্র্যাকের স্ট্র্র্যাটেজি, কমিউনিকেশন্স অ্যান্ড এমপাওয়ারমেন্ট কর্মসূচির উর্ধ্বতন পরিচালক আসিফ সালেহ, নিরাপদ সড়ক চাই সংগঠনের চেয়ারপার্সন ইলিয়াস কাঞ্চন, বিশিষ্ট লেখক ও গবেষক সৈয়দ আবুল মকসুদ, বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির সাধারণ সম্পাদক মোজাম্মেল হক চৌধুরী, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মোখলেছুর রহমানসহ নাগরিক ও সুশীল সমাজের নেতৃবৃন্দ এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন।  
জোটে অন্তর্ভুক্ত ৬টি সংগঠন হচ্ছে: নিরাপদ সড়ক চাই, ব্র্যাক, পাওয়ার অ্যান্ড পার্টিসিপেশন রিসার্চ সেন্টার (পিপিআরসি), বাংলাদেশ বাস-ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতি ও বাংলাদেশ সোসাইটি ফর ইমার্জেন্সি মেডিসিন। এছাড়া গবেষক ও লেখক সৈয়দ আবুল মকসুদ, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশনের সাংগঠনিক সম্পাদক মোখলেছুর রহমান এ জোটের সঙ্গে কাজ করবেন। জোটের সকল পর্যায়ের দাপ্তরিক দায়িত্ব পালন করবে ব্র্যাক।  
সংবাদ সম্মেলনে ড. হোসেন জিল্লুর রহমান জানান, সরকারি তথ্য অনুযায়ী সড়ক দুর্ঘটনার কারণে বাংলাদেশে প্রতি বছর প্রায় ৪ হাজার মানুষ মৃত্যুবরণ করে। দেশে সড়ক দুর্ঘটনাজনিত বাৎসরিক ক্ষতির পরিমাণ প্রায় ৫ হাজার কোটি টাকা, যা জিডিপির ১ থেকে ৩ শতাংশ। অর্থনীতিতে এ ধরনের নেতিবাচক প্রভাব কমিয়ে আনা জরুরি। এই অবস্থায় ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করার বিকল্প নেই বলে তিনি উল্লেখ করেন।
শ্রোতাকে একটি ঐক্যবদ্ধ প্লাটফর্ম হিসেবে উল্লেখ করে এর ড. হোসেন জিল্লুর রহমান বলেন, সড়ক দুর্ঘটনা রোধে আমরা একটি ফলপ্রসূ কার্যকারিতা আনতে চাই। আর এই কার্যকারিতা আনতে হলে সবার ধারাবাহিক সহযোগিতা দরকার। এজন্য আমাদের এই সম্মিলিত উদ্যোগ।
ব্র্যাকের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ একথা বলা হয়।


মন্তব্য