kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


বদরুলকে 'স্যালুট' জানানোর লোকও রয়েছে!

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৫ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:৩৫



বদরুলকে 'স্যালুট' জানানোর লোকও রয়েছে!

সিলেটে ছাত্রলীগ নেতার হামলায় আহত কলেজ ছাত্রী খাদিজা আক্তার নার্গিসের অবস্থা সংকটাপন্ন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে ঢাকার স্কয়ার হাসপাতালে তাঁর মস্তিষ্কে জরুরি অস্ত্রোপচারের পর পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

অস্ত্রোপচারের পর হাসপাতালের নিউরোসার্জারি বিভাগের ডা. এ এম রেজাউস সাত্তার বলেন, এখনই কিছু বলা যাচ্ছে না। ৭২ ঘণ্টা অপেক্ষা করতে হবে। তবে এতটুকু বলা যায় অবস্থা ভালো নয়। আমরা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণ করব। মেয়েটিকে বাঁচানোর সর্বাত্মক চেষ্টা করা হবে।

প্রেমে প্রত্যাখ্যাত হয়ে প্রতিশোধ নিতে গত সোমবার বিকেলে সিলেটের এমসি (মুরারী চাঁদ) কলেজ ক্যাম্পাসে খাদিজা আক্তার নার্গিসকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করেন ছাত্রলীগ নেতা বদরুল আলম। তিনি শাহজালাল বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র এবং বিশ্ববিদ্যালয় শাখা ছাত্রলীগের সহসম্পাদক। এর আগে ২০১২ সালে খাদিজাকে উত্ত্যক্ত করতে গিয়ে গণধোলাইয়ের শিকার হয়েছিলেন বদরুল।

বদরুল যখন সারাদেশে ধিকৃত হচ্ছেন তখনই তার পক্ষে সাফাই গাওয়া একজন লোক পাওয়া গেল। জুয়েল ভূইয়া নামের ওই ব্যক্তি নানা যুক্তি তর্ক দিয়ে বুঝিয়ে অভিযুক্ত বদরুলকে স্যালুট জানিয়েছেন।   ফেসবুকে একটি বিশাল স্ট্যাটাসও লেখেন তিনি। পরে অবশ্য সেটি মুছে দিলেও স্ক্রিনশট রাখা হয় মুছে দেওয়ার আগেই।    জুয়েল ভূইয়ার পরিচয় তেমন ভালো করে না পাওয়া গেলেও তার ফেসবুক প্রোফাইল ঘটে দেখা গেছে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন আওয়ামী নেতার সাথে ছবি তুলেছেন।   জুয়েল ভূইয়া শুধু অপরাধীর পক্ষেই বলেন নি একইসাথে তিনি মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়তে যাওয়া খাদিজাকেও অপরাধী হিসেবে বলতে ভোলেন নি। এছাড়াও কামরুল হাসান বুলেট নামের আরেকজন সোশ্যাল মিডিয়া ফেসবুকে বদরুলের পক্ষে সাফাই গেয়ে পোস্ট দিয়েছেন।   এইসব স্ক্রিনশট এখন ঘুরে বেড়াচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।


মন্তব্য