kalerkantho

শুক্রবার । ২ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৮ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


শিগগিরই আধুনিক আবহাওয়া পূর্বাভাস পাওয়া যাবে

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

৩ অক্টোবর, ২০১৬ ১৯:২৫



শিগগিরই আধুনিক আবহাওয়া পূর্বাভাস পাওয়া যাবে

প্রাকৃতিক দূর্যোগের পূর্বাভাসের মাধ্যমে জীবনহানি এবং ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ কমাতে সরকার ঢাকা ও রংপুরে আধুনিক রাডার ব্যবস্থা স্থাপন প্রকল্পের কার্যক্রম শুরু করেছে।  
নতুন এই রাডার ব্যবস্থা স্থাপনের মাধ্যমে কালবৈশাখী, টর্নেডো, সাইক্লোনসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগের পূর্বাভাসকে দৃশ্যত আরো বেশি সমন্বিত বিশ্লেষন করা সম্ভব হবে বলে আবহাওয়া বিভাগ থেকে জানানো হয়।

 
প্রকল্পের আওতায় ঢাকা ও রংপুরে পুরানো রাডার ব্যবস্থার পরিবর্তে আধুনিক রাডার ব্যবস্থা স্থাপন করা হবে। এর মাধ্যমে আবহাওয়া অধিদপ্তরের অপর তিনটি রাডার- কক্সবাজার, খেপুপাড়া এবং মৌলভীবাজারের সঙ্গে আন্তঃযোগাযোগ স্থাপন করে পূর্বাভাসগুলো একই প্লার্টফর্মে নিয়ে আসা সম্ভব হবে।  
আবহাওয়া বিভাগ জানায়, ১৫ বছর আগে স্থাপিত হওয়ায় রংপুরে রাডার ব্যবস্থাটির সক্ষমতার সময়কাল অতিক্রান্ত হওয়ায় এখন এটি নিস্ক্রিয় হয়ে পড়েছে এবং বহুতল ভবনের কারণেও ঢাকা থেকে পাঠানো টেলিকমিউনিকেশন তরঙ্গ বাধাগ্রস্থ হচ্ছে।  
এছাড়া, বিশ্ব বাজারে রাডারগুলোর খুচরা যন্ত্রাংশ এখন আর পাওয়া না যাওয়ায় নতুন রাডার স্থাপনের এখন আর কোনো বিকল্প নেই।  
আবহাওয়া অধিদপ্তর আগামী ২০১৯ সালের জুনের মধ্যে এই প্রকল্প বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছে। এতে ব্যয় ধরা হয়েছে ২শ’ ৮ কোটি টাকা। ইতিমধ্যেই জাতীয় অর্থনীতিক কাউন্সিল (একনেক)-এর এক্সিকিউটিভ কমিটি প্রকল্পটির অনুমোদন দিয়েছে।  
প্রকল্প বাস্তবায়নে সরকার নিজস্ব তহবিল থেকে ২২ কোটি ৫৭ লাখ টাকা এবং জাপান আন্তর্জাতিক সহযোগী সংস্থা (জাইকা) ১ শ ৮৬ কোটি টাকা যোগান দেবে।  
এর আগে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে থেকে এই প্রকল্পে অর্থায়নের জন্য জাপানকে প্রস্তাব করা হলে জাপান সম্মতি জানায়। এরপর দুই দেশ ২৪ জুন, ২০১৫ সালে প্রকল্প সংক্রান্ত চুক্তি স্বাক্ষর করে।  
প্রতিবছর ঘন ঘন সাইক্লোন, ঘূর্ণিঝড়, বন্যা, জলোচ্ছাস, ভারী বর্ষণ, খরা, টর্নেডো, কালবৈশাখীসহ বিভিন্ন প্রাকৃতিক দূর্যোগে অনেক জীবনহানির সঙ্গে সঙ্গে জানমালেরও অনেক ক্ষতি হওয়ায় বাংলাদেশে আধুনিক আবহাওয়া পূর্বাভাস ব্যবস্থা স্থাপন করা অত্যাবশ্যকীয় হয়ে দাঁড়িয়েছে বলে কর্মকর্তারা জানান।  


মন্তব্য