kalerkantho

রবিবার । ১১ ডিসেম্বর ২০১৬। ২৭ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ১০ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'দেশি-বিদেশি দুষ্টচক্র থেকে ব্যাংকিং খাত রক্ষায় সরকার কাজ করে যাচ্ছে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ২২:৫৮



'দেশি-বিদেশি দুষ্টচক্র থেকে ব্যাংকিং খাত রক্ষায় সরকার কাজ করে যাচ্ছে'

বাংলাদেশ ব্যাংক সরকারি ও বেসরকারি ব্যাংকসমূহের তথ্য ব্যাংকিং খাতকে জালিয়াত চক্র ও দেশি-বিদেশি দুষ্টচক্রের ছোবল থেকে রক্ষার জন্য নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।
আজ সংসদে জাসদের একেএম রেজাউল করিম তানসেনের এক প্রশ্নের জবাবে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের পক্ষে প্রতিমন্ত্রী এম এ মান্নান এ কথা বলেন ।


তিনি বলেন, ব্যাংকসমূহের আইসিটি ঝুঁকিসমূহ চিহ্নিতকরণ ও মোকাবেলায় বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক গাইডলাইন অন আইসিটি সিকিউরিটি ফর ব্যাংক এ্যান্ড নন-ব্যাংক ফাইনান্সিয়াল ইনস্টিটিউশন, মে-২০১৫ প্রণয়ন করা হয়েছে। উক্ত গাইডলাইনটিতে ব্যাংক এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানসমূহের আইসিটি সিকিউরিটি ম্যানেজমেন্টের জন্য কমিটি গঠন, আইটি ঝুঁকি মোকাবেলায় ব্যাংকের পরিচালকদের ভূমিকা, আইটির অবকাঠামোগত ঝুঁকি মোকাবেলার উপায়, ইনফরশেন সিস্টেমে প্রবেশের ক্ষেত্রে নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা ইত্যাদি সম্পর্কে সুস্পষ্ট নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।  
অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী বলেন, এছাড়াও এটিএম লেনদেন নিরাপদ ও এর ঝুঁকি মোকাবেলার জন্য পিএসডি সার্কুলার নং ০১/২০১৬ এর মাধ্যমে ব্যাংকগুলোকে এটিএম বুথসমূহে বাধ্যতামূলকভাবে এন্টি স্কিমিং ও পিন শিল্ড ডিভাইস স্থাপন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।  
মান্নান বলেন, এছাড়া এটিএম বুথ হতে টাকা উত্তোলনের সাথে সাথে স্বয়ংক্রিয়ভাবে গ্রাহককে মোবাইলে এসএমএস এ্যালার্ট প্রদানের মাধ্যমে লেনদেন সংক্রান্ত তথ্য প্রেরণেরও নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এতদ্ব্যতীত, পিএসডি সার্কুলার নং ২/২০১৬ এর মাধ্যমে নতুন নতুন প্রযুক্তিগত আক্রমণ যেমন জিরো-ডে ম্যালওয়্যার এবং এডভান্স পারসিস্টেন্ট থ্রেটস (এপিটি) ইত্যাদি মোকাবেলার জন্য ব্যাংকগুলোকে পরিচালক পর্যদের তত্ত্বাবধানে সাইবার নিরাপত্তা গভর্নেন্স ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।  
তিনি বলেন, এছাড়া পরিপূর্ণ সাইবার নিরাপত্তা ঝুঁকি মূল্যায়ন, তৃতীয় পক্ষের মাধ্যমে গৃহীত সেবাসমূহের ঝুঁকি মোকাবেলার জন্য পরিকল্পনা প্রণয়ন এবং পুরো ব্যবস্থা সার্বক্ষণিক পর্যবেক্ষণের জন্য কার্যরত তথ্য নিরাপত্তা কেন্দ্র (ইনফরমেশন সিকিউরিটি অপারেশন সেন্টার) স্থাপন করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। ব্যাংকগুলোকে ডেবিট ও ক্রেডিট কার্ডের ক্ষেত্রে এটিএম লেনদেনের পাশাপাশি সকল ধরনের পয়েন্ট অব সেল (পিওএস) লেনদেনকে পিনভিত্তিক করার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে।


মন্তব্য