kalerkantho

মঙ্গলবার । ৬ ডিসেম্বর ২০১৬। ২২ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৫ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাওয়ার্ড পাওয়ায় জয়কে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে: পলক

নিজস্ব প্রতিবেদক   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:৪৬



যুক্তরাষ্ট্রে অ্যাওয়ার্ড পাওয়ায় জয়কে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে: পলক

ডিজিটাল বিশ্বের পথে বাংলাদেশকে এগিয়ে নেওয়ায় তথ্য প্রযুক্তিখাতে উন্নয়ন (আইসিটি ফর ডেভেলপমেন্ট) অ্যাওয়ার্ড অর্জন করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ছেলে ও প্রধানমন্ত্রীর তথ্য প্রযুক্তি উপদেষ্টা সজিব ওয়াজেদ জয়কে গণসংবর্ধনা দেওয়া হবে। আজ রবিবার জাতীয় সংসদ অধিবেশনে প্রশ্নোত্তর পর্বে এ কথা জানান তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমদে পলক।

সরকারি দলের সদস্য আব্দুর রহমানের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী আরো বলেন, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য উপদেষ্টা ও তার ছেলের এ কৃতিত্ব ও সাফল্য বাংলাদেশের সবস্তরের মানুষের কাছে বিশাল গর্বের। তিনি তার এ সম্মান ও পুরস্কার দেশের সর্বস্তরের মানুষের জন্য উৎসর্গ করেছেন। আইসিটি বিভাগের থেকে তাকে সংবর্ধনা জানানো উচিত। অবশ্যই তাকে সংবর্ধনা জানানো হবে।  

উল্লেখ্য, গত ১৯ সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড অর্গানাইজেশন অব গভর্নেন্স অ্যান্ড কম্পিটিটিভনেস, প্লান ট্রিফিনিও, গ্লোবাল ফ্যাশন ফর  ডেভেলপমেন্ট এবং যুক্তরাষ্ট্রের কানেকটিকাট প্রদেশের নিউ হেভেন বিশ্ববিদ্যালয়ের স্কুল অব বিজনেস সম্মিলিতভাবে জয়কে এ পুরস্কার প্রদান করে।

আওয়ামী লীগের হাবিবুর রহমানের লিখিত প্রশ্নের জবাবে জুনাইদ আহমেদ পলক জানান, বর্তমান সরকার ক্ষমতা গ্রহণের পর হতে তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের আওয়াতাধীন বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিলের মাধ্যমে প্রথম পর্যায়ে সারা দেশে ৩ হাজার ৫৪৪টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের আওতাধীন ‘সারা দেশের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ও ভাষা প্রশিক্ষণ ল্যাব স্থাপনের কার্যক্রম চুড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে।

সরকারী দলের ইসরাফিল আলমের প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী পলক বলেন, দেশব্যাপী ফ্রি-ল্যান্সার তৈরির লক্ষ্যে তথ্য ও  যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের উদ্যোগে ১৮০ দশমিক ৪০ কোটি টাকা ব্যয়ে লার্নিং এ্যান্ড আর্নিং ডেভেলপমেন্ট প্রজেক্ট শীর্ষক একটি প্রকল্প বাস্তবায়িত হচ্ছে। এ প্রকল্পের আওতায় দেশব্যাপী ইউনিয়ন পর্যায়ে ১২০ জন মহিলাকে বেসিক আইটি লিটারেসির ওপর প্রশিক্ষণ প্রদান করা হয়েছে। প্রফেশনাল আউটসোর্সিং বিষয়ে ২০০ ঘণ্টাব্যাপী প্রশিক্ষণ পরিচালনার উদ্যোগ গ্রহণ করা হয়েছে।


মন্তব্য