kalerkantho

সোমবার । ৫ ডিসেম্বর ২০১৬। ২১ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ৪ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'শিশুর অধিকার বাস্তবায়নে পরিবার ও সমাজের ভূমিকা অপরিসীম'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ২১:০৯



'শিশুর অধিকার বাস্তবায়নে পরিবার ও সমাজের ভূমিকা অপরিসীম'

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, শিশুর অধিকার বাস্তবায়নে পিতা-মাতা, পরিবার ও সমাজের সকলের ভূমিকা অপরিসীম। তিনি সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংস্থাসহ সকল সচেতন নাগরিককে শিশুদের কল্যাণে এগিয়ে আসার আহ্বান জানান।

বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৬ উপলক্ষে আজ এক বাণীতে তিনি এ আহবান জানান।
তিনি শিশুর প্রতি সহিংস আচরণ এবং সকল ধরণের নির্যাতন বন্ধ করার জন্য সবাইকে অনুরোধ জানান।
বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ-২০১৬ পালন করা হচ্ছে জেনে তিনি সন্তোষ প্রকাশ করেন। তিনি বাংলাদেশসহ বিশ্বের সকল শিশুকে আন্তরিক অভিনন্দন জানান।
বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহের এবারের প্রতিপাদ্য : ‘থাকবে শিশু সবার মাঝে ভালো, দেশ-সমাজ পরিবারে জ্বলবে আশার আলো’ অত্যন্ত সময়োপযোগী হয়েছে বলে তিনি উল্লেখ করেন।
তিনি বলেন, বাংলাদেশ জাতিসংঘ শিশু অধিকার সনদের অন্যতম অনুস্বাক্ষরকারী দেশ। জাতিসংঘ ১৯৮৯ সালে শিশু অধিকার সনদ ঘোষণার বহু পূর্বে ১৯৭৪ সালে সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বাংলাদেশ শিশু আইন প্রণয়ন করেন।
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০০৯ সালে সরকার পরিচালনার দায়িত্ব গ্রহণের পর থেকে আমাদের সরকার শিশুদের স্বাস্থ্য, শিক্ষা, বিনোদন ও কল্যাণ নিশ্চিত করতে ব্যাপক কর্মসূচি বাস্তবায়ন করে যাচ্ছে। আমরা জাতীয় শিশু নীতি ২০১১ এবং শিশু আইন ২০১৩ প্রণয়ন করেছি। পথশিশু, ঝুঁকিপূর্ণ কাজে নিয়োজিত শিশু, বিদ্যালয় থেকে ঝরেপড়া ও প্রতিবন্ধী শিশুদের কল্যাণে আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হচ্ছে।
শেখ হাসিনা বলেন, আজকের শিশুরাই আগামীতে দেশের নেতৃত্ব দেবে। তাই শিশুদের সকল প্রকার অধিকার নিশ্চিত করে তাদের শিক্ষিত ও দক্ষ মানবসম্পদে পরিণত করতে হবে।
প্রধানমন্ত্রী বিশ্ব শিশু দিবস ও শিশু অধিকার সপ্তাহ ২০১৬-এর সকল কর্মসূচির সার্বিক সাফল্য কামনা করেন।


মন্তব্য