kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


চাল বিতরণে অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে : কামরুল

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৮:২৮



চাল বিতরণে অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে : কামরুল

খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেছেন, চাল বিতরণের ক্ষেত্রে যে কোনো ধরণের অনিয়মের বিরুদ্ধে কঠিন ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গতমাসে দেশব্যাপী দরিদ্রদের মধ্যে ১০ টাকা কেজি দরে চাল বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেছেন।

 
খাদ্য কর্মকর্তাদের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় খাদ্যমন্ত্রী বলেন, সংশ্লিষ্ট ডিলার সহ কারো বিরুদ্ধে চাল বিতরণের ক্ষেত্রে যে কোনো ধরণের অনিয়ম প্রমান পাওয়া গেলে কঠোর শাস্তিমূলক ব্যবস্থা নেয়া হবে।
তিনি আরো বলেন, ‘আমরা শতভাগ স্বচ্ছতার মাধ্যমে ‘ফুড ফ্রেন্ডলি প্রোগ্রাম’ সাফল্যের সঙ্গে বাস্তবায়নের জন্য কঠোর সতর্কতা অবলম্বন করছি....’
প্রধানমন্ত্রী গত ৭ সেপ্টেম্বর কুড়িগ্রামের চিলমারী উপজেলায় সরকারের সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনী কর্মসূচির আওতায় পাঁচ মাস সারাদেশে ৫০ লাখ অতি দরিদ্র পরিবারের মধ্যে কম দামে চাল বিতরণ কর্মসূচির উদ্বোধন করেছিলেন।
খাদ্যমন্ত্রী বলেন, অতি দরিদ্র মানুষের তালিকা প্রণয়নের ক্ষেত্রে কোন অনিয়ম সহ্য করা হবে না। জনবল ঘাটতির অজুহাত গ্রহণযোগ্য হবে না...যদি ডিলারদের বিরুদ্ধে কোনো অভিযোগ উঠে তাহলে তাদেরকে জেলে যেতে হবে।
খাদ্য বিভাগের মহাপরিচালক এম বদরুল হাসান সম্মেলনে সভাপতিত্ব করেন। এতে খাদ্য সচিব এম বদরুদ্দোজা বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন।
খাদ্য বিভাগের সচিব বলেন, সরকারের পরিকল্পনা রয়েছে অতি দরিদ্র জনগোষ্ঠীকে রক্ষার জন্য ২০৩০ সাল পর্যন্ত এই কর্মসূচি চালিয়ে যাওয়ার।
স্থানীয় প্রতিনিধিদের নির্বাচিত কার্ডধারীরা গ্রামের রেশন ডিলারের মাধ্যমে প্রতি মাসে কম দামে চাল ৩০ কেজি পাচ্ছেন।
তারা প্রতি বছর মার্চ, এপ্রিল, সেপ্টেম্বর, অক্টোবর ও নভেম্বর মাসে ৩০ কেজি চাল পাবেন।
সংশিষ্ট কর্মকর্তারা জানান, খাদ্য বিভাগের কর্মসূচির আওতায় ৭.৫০ লাখ টন চাল সরবরাহ করবে এবং সারাদেশে প্রায় ৩০ শতাংশ অতি দরিদ্র মানুষ এতে উপকৃত হবে।
খাদ্য মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র কর্মকর্তাসহ আঞ্চলিক ও বিভাগীয় খাদ্য নিয়ন্ত্রণ কর্মকর্তারা অনুষ্ঠানে বক্তৃতা করেন।


মন্তব্য