kalerkantho

শনিবার । ৩ ডিসেম্বর ২০১৬। ১৯ অগ্রহায়ণ ১৪২৩। ২ রবিউল আউয়াল ১৪৩৮।


'র্নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে তাজিয়া মিছিল শেষ করতে হবে'

কালের কণ্ঠ অনলাইন   

২ অক্টোবর, ২০১৬ ১৭:৫৬



'র্নিদিষ্ট সময়ের মধ্যে তাজিয়া মিছিল শেষ করতে হবে'

ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)কমিশনার মো. আছাদুজ্জামান মিয়া বলেছেন, নিরাপত্তার স্বার্থে রাজধানীর জন্য নির্ধারিত রুটে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাজিয়া মিছিল শেষ করতে হবে।
তিনি আজ রোববার সকালে পবিত্র মহররম মাসের আশুরা উদযাপন ও তাজিয়া শোক মিছিল উপলক্ষে ডিএমপি’র সদর দফতরে অনুষ্ঠিত আইন-শৃঙ্খলা সংক্রান্ত সমন্বয় সভায় এসব কথা বলেন ।

 
সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজধানীর বিভিন্ন এলাকার পবিত্র আশুরা উৎসব সংক্রান্ত কমিটির প্রতিনিধিগণ, ডিজিএফআই, এসবি,পুলিশ হেডকোয়ার্টার্স, ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি কর্পোরেশনের প্রতিনিধিসহ ডিএমপি’র অন্যান্য কর্মকর্তাগণ।
ডিএমপি কমিশনার বলেন,‘ধর্ম যার যার-উৎসব সবার। ধর্মীয় উৎসব সবাই করবে, এর নিরাপত্তা দিতে রাষ্ট্র বদ্ধপরিকর বিধায় পুলিশ সকল ধর্মীয় উৎসবে নিরাপত্তা দিয়ে আসছে। ’
তিনি আরও বলেন- বর্তমান সময়ের প্রেক্ষিতে ধর্মীয় উৎসব পালন করার পাশাপাশি আমাদের সকলকে নিরাপত্তার কথা মাথায় রাখতে হবে এবং নিরাপত্তাকে অগ্রাধিকার দিতে হবে। নিরাপত্তার জন্য কোন ছাড় দেয়া যাবে না।
আছাদুজ্জামান মিয়া বলেন, নিরাপত্তার স্বার্থে রাজধানীর জন্য নির্ধারিত রুটে নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে তাজিয়া মিছিল শেষ করতে হবে। এক এলাকার মিছিল নিয়ে অন্য এলাকায় যাওয়া যাবে না। মিছিলে নিশান,পাঞ্জা ব্যবহারের জন্য ১২ ফিটের বেশী উচ্চতা বিশিষ্ঠ কোন লাঠি বা বাশঁ ব্যবহার করা যাবে না এবং কোন প্রকার আতশবাজি, পটকা ফোটানো যাবে না।
তিনি বলেন- হোসনী দালান,কারবালাসহ রাজধানীর যেখানে পবিত্র আশুরার অনুষ্ঠান হয়, সেখানে সিসিটিভি স্থাপন করতে হবে এবং প্রবেশ মুখে আর্চওয়ে স্থাপন করে পুলিশ ও স্বেচ্ছাসেবকদের সমন্বয়ে হ্যান্ডমেটাল ডিটেক্টর দিয়ে চেক করে লোকজনদের প্রবেশ করাতে হবে।  
তিনি বলেন, কোনক্রমেই কাউকে ব্যাগ, টিফিন বক্স, প্রেসার কুকার নিয়ে ভিতরে প্রবেশ করতে দেয়া যাবে না।  
মিছিলে অংশগ্রহণকারী পাইকদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন- পাইকরা দৌড়ে সরাসরি অনুষ্ঠানের ভিতরে প্রবেশ করতে পারবে না এবং ছুরি, বল্লম, দাও তলোয়ার নিয়ে মিছিল করতে পারবে না।


মন্তব্য